পেয়ারার পুষ্টিগুণ

পেয়ারার মৌসুম চলছে। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ পেয়ারা খেতে পারেন প্রতিদিন। শুধু ভিটামিন সি নয়; প্রচুর পরিমাণ ম্যাগনেসিয়াম, লাইকোপেন এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টও পাওয়া যায় উপকারী এই ফল থেকে। জেনে নিন পেয়ারা খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে।

 

পেয়ারা

  • সবুজ পেয়ারা ভিটামিন সি এর উৎস। নিয়মিত পেয়ারা খেতে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।
  • পেয়ারাতে থাকা অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান দূরে রাখে ছোটবড় সংক্রমণ থেকে।
  • শরীরে থাকে বিষাক্ত উপাদান দূর করতে সাহায্য করে পেয়ারা।
  • পেয়ারা খেলে ত্বক সুন্দর ও টানটান থাকে। ত্বকের যত্নে পেয়ারার খোসা ও ডিমের কুসুম একসঙ্গে মিশিয়ে বানিয়ে ফেলতে পারেন চমৎকার একটি ফেসপ্যাকও।
  • নিয়মিত পেয়ারা খেলে শরীরের পটাশিয়ামের মাত্রা বাড়ে। ফলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে।
  • পেয়ারাতে থাকা ভিটামিন এ দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখে।
  • ভিটামিন বি৩ এবং বি৬ পাওয়া যায় পেয়ারা থেকে। এসব উপাদান মস্তিষ্কে অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্তের সরবরাহ বাড়িয়ে দেয়।
  • পেয়ারাতে থাকা লাইকোপেন, কুয়েরসেটিন, ভিটামিন সি এবং পলিফেনল শরীরের ভেতরে জমতে থাকা ক্ষতিকর টক্সিক উপাদান বের করে দেয়। ফলে ক্যানসার সেল জন্ম নেওয়ার আশঙ্কা কমে যায়।
  • প্রচুর পরিমাণে ফাইবার পাওয়া যায় পেয়ারা থেকে। নিয়মিত পেয়ারা খেলে তাই কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে দূরে থাকা যায়।
  • রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখে পেয়ারা।
  • শরীরে সোডিয়াম এবং পটাশিয়াম লেভেল ঠিক রাখার মধ্যে দিয়ে ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণে রাখে পেয়ারা। এছাড়া ট্রাইগ্লিসারাইড এবং ক্ষতিকর কোলেস্টরলের মাত্রা কমিয়ে হার্টকে সুস্থ রাখতেও ফলটি কার্যকর।

তথ্য: বোল্ডস্কাই