বিপাকে সৌদি যুবরাজ

Saudi Crown Prince Mohammed bin Salman in New York on March 27, 2018. MUST CREDIT: Bloomberg photo by Jeenah Moon.

সৌদি আরবের বর্তমান বাদশাহ ও যুবরাজের সমালোচক সাংবাদিক জামাল খাশোগির অন্তর্ধানের ঘটনায় বিপাকে পড়েছেন প্রিন্স সালমান।

জামাল খাশোগিকে হত্যা করা হয়েছে বলে মোটামুটি নিশ্চিত করেছেন তুর্কি কর্তৃপক্ষ। নিউইয়র্ক টাইমসে দেয়া তথ্যে তুর্কি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, ঘটনার অডিও রেকর্ড পাওয়া গেছে। সেখানে খাশোগিকে হত্যার বিস্তারিত প্রমাণ রয়েছে।

এদিকে এ ঘটনায় সোচ্চার হয়েছে সৌদি আরবের মিত্রদেশ যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির এক সিনেটর সৌদিকে অস্ত্র সরবরাহ বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন। তুরস্কও ঘটনার ব্যাখ্যা চেয়েছে এবং খাশোগি কনস্যুলেট ছেড়েছেন তার প্রমাণ চেয়েছে।

দুই দিকের চাপে এখন বেকায়দায় সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। খাশোগির গুমের পেছনে তাকেই মাস্টারমাইন্ড মনে করা হচ্ছে।

এছাড়া খাসোগির প্রকৃত অবস্থা জানাতে ক্রমেই চাপ বাড়ছে সৌদি কর্তৃপক্ষের ওপর। আর সৌদি কর্তৃপক্ষ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে, প্রবেশের অল্প সময় পরই কনস্যুলেট ভবন ছেড়ে গেছেন খাশোগি।