অর্থনীতি

ইউক্রেন সংকট

এশিয়া-যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজারে পতন

পুতিনের ঘোষণার পরই ইউক্রেনে পূর্ণ শক্তিতে হামলা চালিয়েছে রাশিয়ার সেনারা। কিয়েভে কয়েক দিক থেকে হামলা চালানো হয়েছে। এমন ভয়াবহ যুদ্ধ পরিস্থিতিতে বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ বাড়ছে। তাছাড়া এর প্রভাব পড়তে শুরু করছে আর্থিক বাজারে। এরই মধ্যে এশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজারে ব্যাপক নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। কমেছে সূচক। সিএনএনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

জানা গেছে, হংকং হ্যাং সেং এর সূচক কমেছে তিন দশমিক দুই শতাংশ, কোরিয়ান কোম্পিংয়ের কমেছে দুই দশমিক সাত শতাংশ, জাপানের নিক্কেই ২২৫ এর কমেছে দুই দশমিক চার শতাংশ। তাছাড়া চীনের সাংহাই কম্পোজিটের কমেছে শূন্য দশমিক নয় শতাংশ।

যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজারগুলোও ধাক্কা খেয়েছে। এসময় ডাও ফিউচারের সূচক কমেছে দুই দশমিক চার শতাংশ, এস অ্যান্ড পি৫০০ এর সূচক কমেছে দুই দশমিক তিন শতাংশ ও নাসডাক ফিউচারের কমেছে দুই দশমিক আট শতাংশ। অন্যদিকে মস্কো এক্সচেঞ্জ বৃহস্পতিবার বাজারে লেনদেন স্থগিত করেছে। পরবর্তী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত এটি কার্যকর থাকবে বলেও জানা গেছে।

এর আগে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমিন জেলেনস্কি বলেছেন, রাশিয়া তার দেশের সামরিক অবকাঠামো ও সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ওপর হামলা চালিয়েছে। তবে তিনি জনগণকে আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। একই সঙ্গে জয় ছিনিয়ে আনারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন জেলেনস্কি।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করা এক ভিডিও বার্তায় জেলেনস্কি পুরো দেশে সামরিক আইন জারি করেন। এদিকে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, এটি আধুনিক অস্ত্র দিয়ে ইউক্রেনের সামরিক অবকাঠামোকে লক্ষ্যবস্তু করে হামলা চালিয়েছে।

ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রি কুলেবা এক টুইট বার্তায় বলেছেন, ইউক্রেনে পূর্ণমাত্রায় আগ্রাসন শুরু করেছেন পুতিন। দিমিত্রি কুলেবা জোর দিয়ে বলেছেন, ইউক্রেন আত্মরক্ষা করবে। তিনি বলেন, পুতিনকে থামাতে হবে ও বিশ্ব অবশ্যই তা পারবে।

বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের ডনবাস অঞ্চলে সামরিক অভিযানের নির্দেশ দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। একই সঙ্গে তিনি আরও জানিয়েছেন, ইউক্রেন এবং রুশ বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ অনিবার্য।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button