অর্থনীতি

বড় পতনের পর শেয়ারবাজারে সামান্য উত্থান

শেয়ারবাজারে বুধবার বড় দরপতনের পর বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল্য সূচকের সামান্য উত্থান হয়েছে। তবে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) পতনের ধারা অব্যাহত রয়েছে।

মূল্য সূচকের পাশাপাশি ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। তবে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ।

এদিন ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১৫৮ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার বিপরীতে কমেছে ১৩৭টির। আর ৫৯টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

বেশি সংখ্যক প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়ার ফলে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের তুলনায় দশমিক ৭১ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৯৩৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

বাকি দুটি সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ এক পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ১৫৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসই-৩০ সূচক দশমিক ৮৭ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৭৩৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

দিনের লেনদেন শেষে সব সূচক ঊর্ধ্বমুখী থাকলেও লেনদেন শুরুর চিত্র ছিল ভিন্ন। লেনদেনর প্রথম আধাঘণ্টার চিত্র বড় পতনের আভাস দিচ্ছিল। বেলা ১১টার দিকে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স প্রায় ৩০ পয়েন্ট পড়ে যায়। এরপরই ঘুরে দাঁড়ায় বাজার।

লেনদেনে অংশ নেয়া একের পর এক প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম বাড়ায় বাড়তে থাকে মূল্য সূচক। এদিন দাম বাড়ার তালিকায় সব থেকে বেশি দাপট দেখিয়েছে প্রকৌশল ও বীমা খাত। প্রকৌশল খাতের ২৫টি কোম্পানির শেয়ার দাম বাড়ার বিপরীতে কমেছে ১২টির দাম। আর বীমা খাতের প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ২৮টির শেয়ার দাম বেড়েছে। বিপরীতে কমছে ১৪টির।

মূল্য সূচক ও বেশি সংখ্যাক প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়লেও এদিন ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণও কিছুটা কমেছে। দিনভর বাজারে লেনদেন হয়েছে ৪০৫ কোটি ১০ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৫০২ কোটি ৪২ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ৯৭ কোটি ৩২ লাখ টাকা।

বাজারে টাকার পরিমাণে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে জেএমআই সিরিঞ্জের শেয়ার। কোম্পানিটির ২১ কোটি ৫৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ন্যশনাল টিউবসের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২০ কোটি ২০ লাখ টাকার। ১৭ কোটি ৬৫ লাখ টাকা লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে মুন্নু জুট স্টাফলার্স।

এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানির মধ্যে রয়েছে- মুন্নু সিরামিক, স্টাইল ক্রাফট, লিগাসি ফুটওয়্যার, বিকন ফার্মাসিউটিক্যাল, ওয়াটা কেমিকেল, সিলকো ফার্মাসিউটিক্যাল এবং ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৯৮২ পয়েন্টে। বাজারে লেনদেন হয়েছে ১২ কোটি ৪০ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেয়া ২৪১ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৮৯টির, কমেছে ১১৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির দাম।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button