স্বাস্থ্য

টিউমার মানেই কি ক্যান্সার

স্বাস্থ্য নিয়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতা বাড়ছে। পাশাপাশি নানারকমের ভীতিও যোগ হচ্ছে। বর্তমান সময়ে ছোটখাটো টিউমার হলেই অনেকে দুশ্চিন্তায় পড়ে যান– ক্যান্সার হলো কি-না! অনেক ক্ষেত্রে চিকিৎসক বুঝিয়ে বলার পরও ভয় কাটতে চায় না। তাই টিউমার বা ক্যান্সার সম্পর্কে প্রাথমিক কিছু ধারণা থাকা ভালো। এতে আক্রান্তরা উপকৃত হবেন।

টিউমার হলো শরীরের অস্বাভাবিক টিস্যু পিণ্ড, যার কোষ বৃদ্ধি হয় স্বাভাবিকের তুলনায় অনেক দ্রুত, অনিয়ন্ত্রিত ও সমন্বয়হীনভাবে। কোষের ধরন ও আচরণ অনুযায়ী টিউমার দুই ধরনের– বিনাইন ও ম্যালিগনেন্ট। বিনাইন টিউমার বিপজ্জনক নয়। তবে ম্যালিগনেন্ট অত্যন্ত ক্ষতিকর টিউমার।

ক্যান্সার এক ধরনের ম্যালিগনেন্ট টিউমার। বিনাইন টিউমার একটি আবরণ দ্বারা বেষ্টিত থাকে। এটি ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পায়। আশপাশে বা শরীরের অন্য কোনো স্থানে ছড়ায় না এবং অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সম্পূর্ণ ভালো হয়। তবে ম্যালিগনেন্ট টিউমার কোনো আবরণ দ্বারা বেষ্টিত থাকে না। ফলে এর বৃদ্ধি হয় অনিয়ন্ত্রিত ও অগোছালো। অতি দ্রুত বৃদ্ধি পেয়ে আশপাশের টিস্যুতে ছড়িয়ে পড়ে। রক্তের মাধ্যমে শরীরের অন্যান্য অংশে ছড়িয়ে পড়ে।

প্রাথমিক অবস্থায় চিকিৎসা করানো গেলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আক্রান্তরা সুস্থ হন। শরীরে ফোলা বা টিউমারের আচরণ যদি ম্যালিগনেন্ট টিউমারের বৈশিষ্ট্যের মতো না হয় এবং রোগীর যদি ক্যান্সারের অন্যান্য লক্ষণগুলোর কোনোটাই না থাকে তাহলে টিউমার নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই।

তাই শুরুতেই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন, চিকিৎসা নিন, ভালো থাকুন।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button