স্বাস্থ্য

ডায়াবেটিক ফুটের লক্ষণ কেমন?

ডায়াবেটিক রোগীর পা- কে ডায়াবেটিক ফুট বলা হয়। আর ডায়াবেটিস দীর্ঘদিন ধরে অনিয়ন্ত্রিত থাকলে, রোগীর পায়ে এক ধরনের ক্ষত হয়। একে ডায়াবেটিক ফুট আলাসার বলে।

এসব সমস্যার লক্ষণ কী, এ বিষয় নিয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩৫৪৪তম পর্বে কথা বলেছেন ডা. আব্দুল্লাহ আল গাদ্দাফী রানা। বর্তমানে তিনি ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশন মেডিকেল কলেজ, ফরিদপুরের অর্থোপেডিকস অ্যান্ড ফুট কেয়ার বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : কী ধরনের লক্ষণ দেখলে বোঝা যাবে, তার ডায়াবেটিক ফুট রয়েছে?

উত্তর : ডায়াবেটিক ফুটকে আমরা যদি তিনটি ভাগে ভাগ করি, তাহলে যে রোগীর ডায়াবেটিস রয়েছে, তাকেই কিন্তু ডায়াবেটিক ফুট বলে। এর মানে হলো যিনি ডায়াবেটিসে ভুগছেন তার পাকেই বলা হয় ডায়াবেটিস ফুট।

সেক্ষেত্রে আমরা তিন ভাগে ভাগ করি। যেমন, লো রিস্ক ফুট। আরেকটি হলো কিছু উপসর্গ থাকে, কারো যদি ১০ বছরের বেশি ডায়াবেটিস থাকে, কারো যদি পা বাঁকা হয়ে থাকে, কারো যদি স্নায়ুরোগ থাকার কারণে পায়ে জ্বালাপোড়া করে এবং পরে যদি অবশ হয়ে যায়, কোনো কারণে যদি তার পায়ের আঙুল আগে থেকে কাটা হয়ে থাকে, শুধুমাত্র ডায়াবেটিসের কারণে, তাকে বলা হয় হাই রিস্ক ফুট। সেই ক্ষেত্রে পায়ের রক্ত চলাচলও একটি বিষয়। রক্ত চলাচল অনেক সময় কমে যেতে পারে এবং পায়ের অবশভাবটা থেকে যেতে পারে। যদি এর ভেতরে যেকোনো একটি থাকে, তাকে বলা হয় মডারেট রিস্ক ফুট। এর ভেতরে দুটো বা তার বেশি যদি লক্ষণ দেখা যায়, তাহলে তাকে বলা হয়, হাই রিস্ক ফুট। এটি খুবই অস্থিতিশীল ডায়াবেটিস ফুট আলসার তৈরি করার ক্ষেত্রে। এসব লক্ষণই আসলে প্রকাশ পায়।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button