আন্তর্জাতিক

ইয়েমেনে শান্তি প্রতিষ্ঠার চেষ্টা বাধাগ্রস্ত করছে যুক্তরাষ্ট্র

ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন বলেছে, দেশটিতে গত প্রায় পাঁচ বছরের সৌদি আগ্রাসন বন্ধ করে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে যে প্রচেষ্টা চলছে তাতে বাধা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। একইসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রকে ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসনের অন্যতম হোতা বলেও অভিহিত করেছে ওই আন্দোলন।

হুথি নেতা ও ইয়েমেনের সর্বোচ্চ বিপ্লবী কমিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মাদ আলী আল-হুথি আজ তুর্কি দৈনিক গেজেটদুভার’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ মন্তব্য করেন।
তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র, ইসরায়েল, ব্রিটেন ও ফ্রান্স যতদিন আগ্রাসী সৌদি আরবের প্রতি সমর্থন বন্ধ না করবে ততদিন ইয়েমেনে আগ্রাসন বন্ধ হবে না। হুথি সমর্থিত ইয়েমেনের সেনাবাহিনী আত্মরক্ষার্থে সৌদি বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করে যাচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

তবে একইসঙ্গে ইয়েমেনে যুদ্ধ বন্ধ করে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে যে কোনো সংলাপকেও তারা স্বাগত জানাবেন বলে জানান আল-হুথি। তিনি ইয়েমেনের ওপর সৌদি নেতৃত্বাধীন কঠোর অবরোধকে ‘যুদ্ধাপরাধ’ হিসেবে চিহ্নিত করে বলেন, এই অবরোধের ফলে ইয়েমেনে বিশ্বের সবচেয়ে খারাপ মানবিক সংকট দেখা দিয়েছে।

হুথি আন্দোলনের এই শীর্ষ নেতা বলেন, তারা সৌদি আরবকে যুদ্ধবিরতির যে প্রস্তাব দিয়েছেন তা হচ্ছে চলমান সংকট থেকে শান্তিপূর্ণ উপায়ে বেরিয়ে যাওয়ার একটি উপায়। কিন্তু রিয়াদ যদি এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে তাহলে সৌদি আরবে আরো মারাত্মক হামলা চালানো হবে বলেও তিনি সতর্ক করে দেন।

গত মাসে হুথি আন্দোলন সৌদি আরবে প্রতিশোধমূলক হামলা বন্ধ করার ঘোষণা দিয়ে জানিয়েছিল, রিয়াদ আগ্রাসন বন্ধ করলে তারা স্থায়ীভাবে যুদ্ধবিরতি মেনে চলবে। তবে সৌদি আরব এখন পর্যন্ত ওই প্রস্তাবে ইতিবাচক সাড়া দেয়নি।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button