আন্তর্জাতিক

করোনার মধ্যে নতুন আতঙ্ক জিকা ভাইরাস, ভারতে আক্রান্ত প্রায় ১০০

করোনাভাইরাস মহামারিতে বিপর্যস্ত ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য উত্তরপ্রদেশের কানপুরে জিকা ভাইরাসের প্রকোপ দেখা দিয়েছে। সোমবার কানপুরের স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, শহরটিতে ১৭ শিশু-সহ অন্তত ৮৯ জনের জিকা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

১৯৪৭ সালে প্রথমবারের মতো আবিষ্কৃত মশা-বাহিত ভাইরাস জিকা ভাইরাস ২০১৫ সালে ব্রাজিলে মহামারি আকারে পৌঁছায়। ওই সময় দেশটিতে হাজার হাজার শিশুর জন্ম হয় মাইক্রোসেফালি নিয়ে। এই রোগে আক্রান্ত শিশুদের মাথা অস্বাভাবিক ছোট এবং মস্তিষ্ক সুগঠিত হয় না। সংক্রমিত এডিস মশার কামড়ের মাধ্যমে সংক্রমণ ছড়ায়।

ভারতের সবচেয়ে জনবহুল রাজ্য উত্তরপ্রদেশের কানপুর জেলার প্রধান মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. নেপাল সিং বলেছেন, জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত বৃদ্ধি পেয়েছে এবং স্বাস্থ্য বিভাগ এই ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া নিয়ন্ত্রণে বেশ কয়েকটি দল গঠন করেছে।

তিনি বলেন, ‘আক্রান্তদের মধ্যে একজন নারী আছেন, যিনি গর্ভবতী। আমরা তার প্রতি বিশেষ মনোযোগ দিচ্ছি।’

গত কয়েক বছরে ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্যে জিকা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। যদিও উত্তরপ্রদেশের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণবিষয়ক শীর্ষ সরকারি আমলা অমিত মোহন প্রসাদ রয়টার্সকে বলেছেন, এই রাজ্যে জিকার এটাই প্রথম প্রাদুর্ভাব।

গত ২৩ অক্টোবর উত্তরপ্রদেশের শিল্পনগরী কানপুরে প্রথম জিকা ভাইরাস শনাক্ত হয়। গত সপ্তাহে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রসাদ বলেন, ‘আমরা অত্যন্ত আগ্রাসী কন্টাক্ট ট্রেসিং করায় লোকজনের জিকা পজিটিভ শনাক্ত হচ্ছে।’

তিনি বলেন, কর্তৃপক্ষ জিকা প্রাদুর্ভাবের বিরুদ্ধে নজরদারি বৃদ্ধি এবং ভাইরাস ছড়াতে পারে এমন মশার প্রজনন ক্ষেত্র নির্মূল করছে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button