আন্তর্জাতিক

দক্ষিণ কোরিয়ার গালি দিলে উত্তর কোরিয়ায় সাজা

দক্ষিণ কোরিয়ার গালি ব্যবহার করলে সাজা পেতে হবে উত্তর কোরিয়ার বাসিন্দাদের। শুধু তাই নয়, সতর্ক করা হয়েছে গানবাজনা, চুল কাটাসহ দক্ষিণ কোরিয়ার ফ্যাশন অনুকরণ নিয়েও। এ নিয়ে নতুন আইন পাস করেছে উত্তর কোরিয়া। আইন ভঙ্গ করলে কারাদণ্ড, এমনকি মৃত্যুদণ্ডের সাজা হতে পারে।

সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়, বিদেশি সংস্কৃতির প্রভাব থেকে দেশকে বাঁচাতে সম্প্রতি তোড়জোড় শুরু করে উত্তর কোরিয়া। এর জের ধরে পাস করা হয় নতুন আইন। তারই ধারাবাহিকতায় নতুন এই সতর্কতাগুলো জারি করা হলো। আইন ভঙ্গ করলে কারাদণ্ড, এমনকি মৃত্যুদণ্ডের সাজা হতে পারে।

উত্তর কোরিয়ার নতুন আইন অনুযায়ী, দেশটিতে কারও কাছ থেকে অধিক পরিমাণে দক্ষিণ কোরিয়া, যুক্তরাষ্ট্র বা জাপানের ছবি, ভিডিও বা গানের সংগ্রহ পাওয়া গেলে তাঁকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা ভোগ করতে হবে। আর এগুলো দেখা অবস্থায় ধরা পড়লে পেতে হবে ১৫ বছর কারাদণ্ড।

রোদং সিনমুন পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়, আদর্শিক ও সাংস্কৃতিক অনুপ্রবেশ বন্দুকধারী শত্রুর চেয়েও ভয়ংকর। বলা হয়, দক্ষিণ কোরিয়ার পপ সংস্কৃতির হুমকির মুখে লাখ লাখ মানুষ। প্রতিবেদনে উত্তর কোরিয়ায় ব্যবহৃত পিয়ংইয়ং উপভাষা শ্রেষ্ঠত্বের দিক দিয়ে এগিয়ে উল্লেখ করে তরুণদের সঠিকভাবে নিজেদের ভাষা ব্যবহার করার আহ্বান জানানো হয়।

উত্তর কোরিয়ায় কমিউনিস্ট সরকার এবং নেতা কিম জং–উন শুরু থেকেই বিদেশি সংস্কৃতির প্রভাবকে হুমকি হিসেবে দেখে আসছেন।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button