আন্তর্জাতিক

পূজা মণ্ডপে আযান, ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ

চলছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান দুর্গাপূজা। আর এই পূজাকে ঘিরে বিতর্ক বাঁধল কলকাতার বেলেঘাটার ৩৩ পল্লিবাসী বৃন্দের পূজার বিরুদ্ধে। তাদের বিরুদ্ধে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ উঠল। আর তা নিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন এক আইনজীবী। গোটা ঘটনায় শোরগোল পড়েছে ভারত জুড়ে।

এদিকে বেলেঘাটার ৩৩ পল্লিবাসী বৃন্দের দাবি, তাদের পূজার এবারকার থিম ‘আমরা এক, একা নই।’। আর এই ‘ধর্মনিরপেক্ষ’ থিমের কারণেই মণ্ডপে এবার জায়গা পেয়েছে গির্জা, মসজিদ ও মাতৃ প্রতিমা। পূজা উদ্যোক্তাদের দাবি, কিছু মানুষ উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে বিতর্ক বাঁধানোর চেষ্টা করছে। তাদের দাবি, দুর্গাপূজায় আযান বাজানোর দাবি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভ্রান্ত।

তবে এই থিম নিয়ে তীব্র আপত্তি তুলেছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। তাদের দাবি, মণ্ডপের মধ্যে আযান বাজানোয় হিন্দু ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত লেগেছে।

পরে এই ঘটনায় ১০ জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন নেতাজিনগর এলাকার বাসিন্দা আইনজীবী শান্তনু সিংহ। এই পূজার অন্যতম কর্মকর্তা তৃনমূল কংগ্রেস নেতা পরেশ পাল। তার নামেও দায়ের হয়েছে অভিযোগ। তার দাবি, বিজেপি ও আরএসএস বাংলার সংস্কৃতি জানে না। তিনি বলেন, বিজেপি, আরএসএস বাংলায় বিভাজনের রাজনীতি করছে।

এই পূজার থিম যে শিল্পীর মাথায় এসেছে সেই রিন্টু দাসের বক্তব্য, আমাদের এবারকার থিম ‘আমরা এক, একা নই।’ সাম্প্রদায়িকতা ভুলে সকলে যেন সম্প্রীতির বন্ধনে আবদ্ধ থাকে সে কথা মাথায় রেখেই দর্শনার্থীদের জন্য তুলে ধরা হয়েছে এই মণ্ডপ।

পূজার থিম বিবেচনা করেই এবার প্রতিমার হাতে কোনো অস্ত্র তুলে দেওয়া হয়নি। ‘মা’ এখানে সম্প্রীতি ও শান্তিদায়িনী। পুলিশের পক্ষ থেকে এই বিষয়ে কোনো তথ্য জানানো হয়নি। তবে কলকাতা পুলিশ ঘটনার দিকে কড়া নজর রেখেছে বলে জানা গিয়েছে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button