আন্তর্জাতিক

পোল্যান্ডের মানবিক ভিসা পেলেন বেলারুশের সেই স্প্রিন্টার

অলিম্পিক থেকে আগেই ফিরে যাওয়ার নির্দেশ পাওয়া বেলারুশ স্প্রিন্টারকে মানবিক ভিসা দিয়েছে পোল্যান্ড। ২৪ বছর বয়সী ক্রিশ্চিনা তিমানোভস্কি এখন টোকিওর পোলিশ দূতাবাসে অবস্থান নিয়েছেন।
কোচের সমালোচনাকরায় ক্রিশ্চিনাকে জোর করে বিমানবন্দরে নিয়ে যায় তার দল। এরপর নিজের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি। এরপর জাপানি পুলিশ তার নিরাপত্তা নিশ্চিত করে পোল্যান্ড দূতাবাসে হস্তান্তর করে।
বেলারুশ কর্তৃপক্ষ জানায়, তার মানসিক অবস্থার কারণে দল থেকে বাদ দেয়া হয়েছে।
বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাতকারে সোমবার ক্রিশ্চিনা বলেন, তিনি নিরাপদ আছেন। তবে বিস্তারিত কিছু বলা সম্ভব নয়।
এই ঘটনায় আবারও আলোচনায় এসেছেন বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্ডার লুকাশেঙ্কো। ১৯৯৪ সাল থেকে তিনি ক্ষমতায় আছেন। তবে গতবছর অনুষ্ঠিত নির্বাচনের স্বচ্ছতা নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে দেশজুড়ে আন্দোলনও হয়েছে। আন্দোলনে অংশ নেওয়া জাতীয় পর্যায়ের ক্রীড়াবিদদের এজন্য আর্থিক সুবিধা বন্ধ করে দেওয়া হয়।
পোল্যান্ডের পররাষ্ট্র উপমন্ত্রী মার্কিন প্রিজিদাজ বলেন, তারা ক্রিশ্চিনার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ করছেন। তার ক্যারিয়ার যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় বিষয়টি দেখবেন তারা।
ইতোমধ্যে ক্রিশ্চিনার স্বামী পোল্যান্ডে স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে ইউক্রেনে পৌঁছেছেন।
পোল্যান্ডের সিদ্ধান্ত নিয়ে এখনও কোনও মন্তব্য করেনি বেলারুশ সরকার। তবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে। সংস্থাটির মুখপাত্র নাবিলা মাসরালিবলেন, বেলারুশ জোরপূর্বক ক্রিশ্চিনাকে দেশে পাঠানো সরকারের একটি নিপীড়নের উদাহরণ। আমরা ক্রিশ্চিনার সঙ্গে একাত্ম পোষণ করছি।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button