বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

ভাঁজ করা এই ডিভাইসে মিলবে ফোন ও ট্যাবের স্বাদ

মাইক্রোসফটের চমক। সবার আগে লঞ্চ করল ডুয়াল স্ক্রিনের ডিভাইস। হ্যাঁ, স্যামসাং, হুয়াওয়ে, অ্যাপেল নয়। মাইক্রোসফট স্মার্টফোন দুনিয়ায় প্রথম নিয়ে এল ভাঁজ করা স্ক্রিনের ফোন। ঠিক যেন বইয়ের মত। অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে চলবে এই ফোন। ৫.৬ ইঞ্চির দুটি ডিসপ্লে রয়েছে যা ৩৬০ ডিগ্রি রোটেট হবে। ভাঁজ খোলার পরে স্ক্রিনের সাইজ হচ্ছে ৮.৩ ইঞ্চি। স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ প্রসেসর থাকবে ফোনটিতে। তবে ফোনটির বাইরের দিকে কোনো ক্যামেরা নেই। যে ভিডিওটি শেয়ার করেছে তাতে রিয়ার ক্যামেরা দেখা যাচ্ছে না।

এই ফোনের অন্দরমহলের জন্য মাইক্রোসফট গুগলের সঙ্গে জোট বেঁধেছে বলে জানা যাচ্ছে। ফোনটির নাম ‘সারফেস ডুও’। আগামী বছর থেকেই কিনতে পারবেন গ্রাহকরা।

‘উইন্ডোজ মোবাইল ১০’ এর ব্যর্থতার পর কেউ ভাবতেই পারেনি, সব স্মার্টফোন নির্মাতাকে পিছনে রেখে সবার আগে বাজারে নিয়ে আসবে ফোল্ডিং ফোন।

উল্লেখ্য, একটা নয়, একই সঙ্গে বাজারে আরেকটি ডুয়াল স্ক্রিন ল্যাপটপ নিয়ে আসছে মাইক্রোসফট। নাম ‘সার্ফেস নিও’। এর স্ক্রিন ৯ ইঞ্চির। একইভাবে ৩৬০ ডিগ্রি রোটেট হবে।

স্যামসাংয়ের পঞ্চম বার্ষিক অনুষ্ঠানে তাদের আসন্ন ভাঁজ করা ডিসপ্লের কথা ঘোষণা করা হয় ২০১৮ এর শেষে। বেশ কিছু বছর ধরেই এই ডিসপ্লে তৈরির কাজ চলছে একাধিক স্মার্টফোন নির্মাণ কোম্পানিতে। ট্যাব নিয়ে চলা ফেরা মুশকিলের। সহজে পকেটে ঢুকতে চায় না এই ডিভাইস। তাই সেই মুশকিল আসান করেছে স্মার্টফোন নির্মাতারা। এই নতুন যুগান্তকারী ডিসপ্লের ট্যাবকে ভাঁজ করে পকেটে নিয়ে ফেলতে পারবেন আপনি।

স্যামসাং জানিয়েছিল ডিভাইসটিতে ফোন কলের সুবিধা রাখবে। ট্যাবলেটটিকে ভাঁজ করলে একটি ছোট ৪.৬-ইঞ্চির ডিসপ্লে, বেজেল সহ একটি স্মার্টফোনে পরিণত হবে। ট্যাবের অ্যাসপেক্ট রেশিও হবে ২১:৯, ও স্ক্রিনের মাপ ৭.৩ ইঞ্চি। ভাঁজ করলে তার মাপ হবে ৪.৬ ইঞ্চি। ২০১৯ সালের শেষে এই ফোন লঞ্চের পরিকল্পনার কথা শোনা যায় গ্যাজেট মহলে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button