রাজশাহী বিভাগসারাদেশ

ধামইরহাটে ভাগ্নের ধারালো অস্ত্রের কোপে মামার মৃত্যু

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ নওগাঁর ধামইরহাটে ভাগ্নের ধারালো অস্ত্রের কোপে মামা খুন হয়। জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে সংঘর্ষে মামা মোতাফফর রহমান চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। উক্ত সংঘর্ষে মামা-ভাগ্নের দু’গ্রপুরের কয়েক জন আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। নিহতের ভাই বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ চারজনকে আটক করেছে। উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের মির্জাপুর (কশিবাড়ী) গ্রামের এক ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে,উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের মির্জাপুর (কশিবাড়ী) গ্রামের আলহাজ্ব মোতাফ্ফর রহমান এর সাথে তার চাচাতো বোনের ছেলে নজরুল ইসলামের মাঝে বসতবাড়ী,ভিটামাটি ও পুকুর নিয়ে দির্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে গত শনিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে বিবাদমান পুকুরের গাইড ওয়াল নির্মাণকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ বাধে।

সংঘর্ষে আলহাজ্ব মোতাফ্ফর রহমান (৬০),তার ভাই মোয়াজ্জেম হোসেন (৫৫),ছেলে রেজুয়ান হোসেন (৩৫),অপর ছেলে আসাদুজ্জামান (৩০),ভাতিজা আবু সুফিয়ান (৩১) মারাত্মক আহত হয়। অপর দিকে ভাগ্নে নজরুল ইসলাম (৫০),তার তিন ছেলে আব্দুল ওয়াদুদ (৩৫),আবু রায়হান (৩০) এবং মেহেদী হাসান (২৩) জখম হয়। এদের মধ্যে মোতাফ্ফর রহমান এবং আবু রায়হান কে গুরুতর আহত অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অন্যদেরকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। রাজশাহীতে চিকিৎসাধীনবস্থায় রবিবার ভোরে মোতাফ্ফর রহমান মারা যায়। এদিকে নিহতের ছেলে আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ নজরুল ইসলামের স্ত্রী মর্জিনা খাতুন (৪৫),তার ছেলে আব্দুল ওয়াদুদ,মেহেদী হাসান ও আবুু রায়হান কে আটক করে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button