রাজশাহী বিভাগসারাদেশ

বগুড়ার বিসিক কারখানার সেফটিক ট্যাংকি থেকে উদ্ধার হলো নিখোঁজ দুই নৈশ প্রহরীর লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়াঃ বগুড়া শহরের বিসিক শিল্পনগরীর ‘মেসার্স মাছু অ্যান্ড সন্স ইন্ডাস্ট্রিজ’ এর সেপটিক ট্যাঙ্কির ভেতর থেকে শামছুল হক (৬০) ও আব্দুল হান্নান (৪৫) নামে দুই নৈশ্য প্রহরীর লাশ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ খবর পেয়ে শুক্রবার বিকেলে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহতরা হলেন, জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার মহাস্থান প্রতাপপুর এলাকার মৃত হাসু আলীর ছেলে শামছুল হক (৬০) এবং বগুড়া সদর উপজেলার নামুজা বড় সরলপুর গ্রামের আব্দুল জোব্বারের ছেলে আব্দুল হান্নান (৪৫)।

জানা গেছে, শামছুল হক ও আব্দুল হান্নান কারখানার উদ্দেশ্যে বুধবার বিকেলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর বাড়ি ফেরেননি। অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তি নিখোঁজ আব্দুল হান্নানের মোবাইল ফোন থেকে তার স্ত্রীর কাছে এসএমএস পাঠিয়ে দু’জনকে অপহরণের কথা জানিয়ে মুক্তিপণ হিসেবে ৫ লাখ টাকা দাবি করে। পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে দুই নৈশ প্রহরীর খুনের মোটিভ সম্পর্কে কিছু জানাতে পারেনি।

‘মেসার্স মাছু অ্যান্ড সন্স ইন্ডাস্ট্রিজ’ এর পরিচালক আলীমুর রাজীব জানান, ওই দুই নৈশ প্রহরী বুধবার রাতে কারখানায় নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করেন। তবে বৃহস্পতিবার সকালে পরিবারের সদস্যদের মাধ্যমে জানতে পারেন যে তারা বাড়ি ফিরেন নি। তিনি বলেন, নৈশ প্রহরী আব্দুল হান্নানের স্ত্রী হীরা জানান, তার স্বামীর মোবাইল থেকে অপহরণের কথা বলে মুক্তিপণ হিসেবে ৫ লাখ টাকা দাবি করোছে। এরপর বৃহস্পতিবার কারখানায় উৎপাদন বন্ধ রাখা হয় এবং পুরো বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করা হয়।

দুইদিন খোজাখুজির এক পর্যায়ে শুক্রবার বিকেলে কারখানার পেছনে সেপটিক ট্যাঙ্কের মধ্যে লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে জানানো হয়। পরে পুলিশ দু’জনের লাশ উদ্ধার করে সর্গে পাঠায়।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button