খুলনা বিভাগসারাদেশ

ভাঙ্গায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলা: ঘর-বাড়ী, মসজিদ ভাংচুর

ভাঙ্গা(ফরিদপুর) প্রতিনিধিঃ ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার আজিম নগর ইউনিয়নের ব্রাহ্মনপাড়া গ্রামে তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সংঘর্ষের ঘটনায় বেশ কয়েক জন আহত হয়েছে। তাদেরকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় প্রায় ১০ টি বসত ঘর সহ একটি মসজিদ ভাংচুরের শিকার হয়। হামলার সময় টাকা-পয়সা সহ মূল্যবান সমাগ্রী লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ করেছেন ক্ষতিগ্রস্থরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রায় দু,ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষের ঘটনায় এলাকা থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পক্ষদ্বয়কে নিবৃত করে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে প্রকাশ ওই গ্রামের রিপন শেখের ছেলের সুন্নতে খতনা উপলক্ষে অনুণ্ঠানে দাওয়াত দেওয়াকে কেন্দ্র করে দু,পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের সূত্রপাত। সূত্রে প্রকাশ প্রতিপক্ষ লুৎফর শিকদার ও শহিদ হাওলাদারের নেতৃতে¦ ৪০/৫০ জন সংঘবদ্ব হয়ে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মওলা শিকদার ,রোকন শিকদারের পক্ষের মস্তফা শেখ,আলম শিকদারের সহ অন্তত ১০টি পরিবারের বসত ঘর ভাংচুর করে । এ সময় ব্যাপক লুটপাট চালিয়ে টাকা-পয়সা ও মূল্যবান সামগ্রী নিয়ে যায় বলে অভিযোগে প্রকাশ। ভুক্তভোগী লাবনী আক্তার বলেন, একটি সাধারন ঘটনার জের ধরে আমাদের বাড়ি-ঘর ভেঙ্গে নারকীয় তান্ডব চালিয়ে প্রতিপক্ষরা বাড়ি-ঘর ভেঙ্গে ব্যাপক লুটপাট চালায়। হামলায় মহিলারা ভয়ে আতংকিত হয়ে পড়ে। তারা সর্বস্ব ছিনিয়ে নেয়। মওলা শিকদার জানান, কিছু বুঝে উঠার আগেই প্রতিপক্ষরা জামাল শিকদার,মস্তফা শেখ,এরফান মাতুব্বরসহ বেশ কয়েক জনের ঘর-বাড়ি ভেঙ্গে ব্যাপক তান্ডব চালায়। এদের হামলা থেকে রেহাই পায়নি মসজিদটিও। তারা মসজিদের ব্যাপক ক্ষতি করে। এদিকে এ ঘটনায় এনায়েত মুন্সী বাদী হয়ে দেলোয়ার মেম্বরকে প্রধান আসামী করে ১৬ জনের নামে ভাঙ্গা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।পুলিশ জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button