রাজশাহী বিভাগসারাদেশ

সাপাহারে বাক-প্রতিবন্ধী আদিবাসী নারী ধর্ষণ,ধর্ষক গ্রেফতার

সাপাহার(নওগাঁ)প্রতিনিধি: নওগাঁর সাপাহারে বাক-প্রতিবন্ধী এক আদিবাসী নারীকে ধর্ষণের দায়ে মফি উদ্দিন (৪৩) নামের এক ব্যক্তিকে থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে।
এই ন্যাক্কার জনক ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার আইহাই ইউনিয়নের শুকরইল গ্রামে গত শনিবার দুপুরে । মামলা সুত্রে জানা গেছে ,শুকরইল আদিবাসী পাড়ার বাক-প্রতিবন্ধী আদিবাসী নারী (৩২)ওই দিন দুপুরে গ্রামের অদুরে মাঠে ঘাস কাটতে যায়। এ সময় পার্শবর্তি আইহাই দিঘী পাড়া গ্রামের আলতাফ আলীর ছেলে মফি উদ্দিন তাকে একা পেয়ে জোর পূর্বক ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে।
পরে ওই মহিলার স্বামী বাদী হয়ে পরদিন সকালে স্থানীয় থানায় নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করে।
মামলার প্রেক্ষিতে সাপাহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেকুর রহমান সরকারের নির্দেশনায় ওইদিন বিকেলে এস আই জিন্নাতুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স সহ আইহাই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আসামি মফি উদ্দিনকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসেন।
গ্রামের লোকজন জানান, প্রতিদিনের মতো ভিকটিম তার ছাগলের জন্য ঘাঁস কাটতে মাঠে যায়। দুপুরে মাঠে কোন লোকজন না থাকায় একাকী পেয়ে পাশের আইহাই দিঘী পাড়া গ্রামের মফি উদ্দিন ভিকটিমের গলায় হাঁসুয়া ধরে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে ফেলে পালিয়ে যায়।
এবিষয়ে সাপাহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেকুর রহমান সরকার জানান, ভিকটিমের স্বামী বাদী হয়ে থানায় একটি নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। মামলার পর ফোর্স পাঠিয়ে আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button