রংপুর বিভাগসারাদেশ

সৈয়দপুরে কুকুরের কামড়ে ১৫ জন আহত, আতঙ্কে এলাকাবাসী

নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি: একটি পাগলা কুকুরের  কামড়ে নীলফামারীর  সৈয়দপুরে ৮ ঘণ্টা সময়ের মধ্যে শিশুসহ আহত হয়েছে ১৫ জন । তাদের মধ্যে ১০ জনকে  হাসপাতেল ভর্তি হয়েছে। রোববার দুপুর ১২ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন এলাকায় তাদের কামড় দিয়ে আহত করে কুকুরটি। আহতদের মধ্যে শহরের মিস্ত্রিপাড়ার কামাল হোসেনের  ইসমাইল (৭) এক শিশুর গাল  কামড় দিয়ে ছিড়ে ফেলায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে নীলফামারী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিক্যাল অফিসার ডা. মো. আবু বক্কর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
আহত অন্যান্যদের মধ্যে  যারা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন তারা হলেন মিস্ত্রিপাড়ার জবির হাসান (৩০), ইবরার (৪৪), হায়দার আলী (৪০), কামাল হোসেন (৪৭), শাবানা আকতার (৩৫) ও রাজু (২৮) এবং সাহেবপাড়ার ইসমাইল (৭), ইব্রাহিম (১২) ও মোস্তাফিজুর (৬৬)।
বেওয়ারিশ কুকুরের কামড়ে ক্ষতবিক্ষতের এ ঘটনায় ওই দুটি মহল্লায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। মহল্লার লোকজন দলবেঁধে লাঠিসোটা নিয়ে রস্তায় চলাচল করছে।
এলাকাবাসী জানায়, দুপুরের পর থেকে বেওয়ারিশ কুকুরটি পথচারীসহ মহল্লার অন্তত ১৫জনকে কামড়ে ক্ষতবিক্ষত করে। কুকুরটি আড়ালে থেকে অতর্কিত ভাবে পথচারীদের ওপর লাফিয়ে কামড় দিচ্ছে। তারা বলেন, সন্ধ্যার পর থেকে লোকজন দলবেঁধে লাঠি হাতে রাস্তা চলাচল করছে।
সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রবিউল ইসলাম জানান, রাত ৮টা পর্যন্ত শিশু ও মহিলাসহ ১০ জন কুকুর কামড়ে আহত রোগিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে এ হাসপাতালে কুকুর কামড়ানোর প্রতিষেধক ইনজেকশন না থাকায় আহতদের নীলফামারী সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button