রংপুর বিভাগসারাদেশ

সৈয়দপুরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছাড়া ভবন নির্মাণ, বিদ্যুৎস্পর্শে শ্রমিকের মৃত্যু

নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুরে বিদ্যুৎস্পর্শে দুই সন্তানের জনক জাকির হোসেন (২৮) নামে এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) শহরের নয়াটলায় উপজেলা প্রাণী সম্পদ দপ্তর ও ভেটনারি হাসপাতাল মোড়ে ৩ তলায় রড তুলতে গিয়ে ওই দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত জাকির উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের সিপাইগঞ্জ ডাঙ্গাপাড়ার মৃত ওয়াহেদ আলীর পুত্র। এদিকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছাড়া এভাবে একের পর এক দূর্ঘটনা ঘটলেও কতৃপক্ষ নিরব ভূমিকা পালন করছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকুরীজীবি আবু মুসা উল্লেখিত এলাকায় ১১ হজার ভোল্টের সার্ভিস তার ও বৈদ্যুতিক পোল ঘেঁষে বহুতল ভবন করছেন। জাকির হোসেনসহ কয়েকজন শ্রমিক ৩য় তলায় রড বাধাঁর কাজ করছিল। এ সময় জাকির নিচ থেকে রড তুলতে গিয়ে বৈদ্যুতিক তারের স্পর্শ লাগে । এতে ৩য় তলা থেকে ওই শ্রমিক রাস্তার ওপর পড়ে যায়। স্থানীয়রা দ্রুত তাকে উদ্ধার করে ১০০ শয্যা হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়। নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানায় ভবন মালিকপক্ষ ২ লাখ টাকার বিনিময়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দিয়ে মামলা না করার জন্য পরিবারের লোকজনকে চাপ প্রয়োগ করছে। সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আবূল হাসনাত খান জানান, হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
উল্লেখ্য গত ১৯ মার্চ শহরের নতুন বাবুপাড়ায় বহুতল ভবন নির্মাণ করতে গিয়ে একইভাবে বিদ্যুৎস্পর্শ হয়ে দু’জন নির্মাণ শ্রমিক মারাত্বকভাবে আহত হয়ে এখনো যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button