রাজশাহী বিভাগ

নওগাঁয় সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের স্টেপ প্রকল্পে নিযুক্ত শিক্ষকদের মানববন্ধন

নওগাঁ প্রতিনিধি ঃ কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের (ডিটিই) স্টেপ প্রকল্পের অধীনে নিযুক্ত ৭৭৭ জন শিক্ষকের চাকুরি দ্রুত রাজস্ব খাতে স্থানান্তর ও ১৮ মাসের বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধের দাবিতে নওগাঁয় শিক্ষকদের মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুুপুরে নওগাঁ সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।
মানবন্ধনে নওগাঁ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের আর্কিটেকচার টেকনোলজির শিক্ষক সোমা রাণী সরকার বলেন, কারিগরি শিক্ষার প্রসারে স্টেপ প্রকল্পের অধীনে নিযুক্ত শিক্ষকেরা বরাবরের মতোই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছেন। আমারা পাঠদান বন্ধ করে দিলে সারাদেশের সরকারী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটগুলোর শিক্ষা কার্যক্রম অচল হয়ে পড়বে। অনেক বিষয়ের বিষয়ভিত্তিক কোনো শিক্ষকই থাকবে না। করোনা মহামারীতে সারাদেশের অর্থনীতি যখন স্থবির হয়ে পড়েছে সেই মুহুর্তে বেতন-ভাতা না পেয়ে আমাদের চরম আর্থিক সংকটের মধ্যে দিনযাপন করতে হচ্ছে। কারিগরি শিক্ষা কার্যক্রমকে রক্ষা করতে গেলে আমাদের বকেয়া ১৮ মাসের বেতন দ্রুত পরিশোধসহ চাকুরি দ্রুত রাজস্ব খাতে স্থানান্তর করতে হবে।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে নওগাঁ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষক রায়হান মিজান হাবিব, আয়েশা খাতুন, আবু হাসান, আলামিন, আজাদ হোসেন, আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, এনামুল হক, মাহমুদা ইয়াসমিন প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।
মানববন্ধনে নওগাঁ সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে স্কিলস অ্যান্ড ট্রেইনিং এনহ্যান্সমেন্ট প্রকল্পের (স্টেপ) অধীনে নিযুক্ত ১৭ জন কারিগরি শিক্ষক অংশ নেন।
উল্লেখ্য: সারাদেশে ৪৯টি সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে ১ হাজার ৪২৭ জন শিক্ষক রয়েছেন। এর মধ্যে মাত্র ৬৫০ জন শিক্ষক রাজস্ব খাতে রয়েছে। বাকী ৭৭৭ জন শিক্ষকের প্রত্যেকেই স্টেপ প্রকল্পের অধীনে নিয়োগপ্রাপ্ত। দেশের সরকারি ৪৯টি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে শিক্ষার মানোন্নয়ন ও শিক্ষক স্বল্পতা দূর করার লক্ষ্যে ২০২০ সালে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর স্টেপ প্রকল্পটি গ্রহণ করেন। ওই প্রকল্পের অধীনে দুই ধাপে ১০১৫ জন শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়। বর্তমানে কর্মরত আছেন ৭৭৭ জন। প্রকল্পটি ২০১৯ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত চালু ছিল। কিন্তু ওই প্রকল্পটি শেষ হওয়ার দিন প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদিত অনুশাসনের আলোকে স্টেপ প্রকল্পে নিযুক্ত ৭৮৬ জন শিক্ষককে সাময়িকভাবে বহালরেখে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। ২০১৯ সালের ১৪ জুলাই শিক্ষা মন্ত্রণালয়, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ ওই ৭৮৬ জন শিক্ষকের চাকুরি রাজস্বখাতে স্থানান্তরের প্রস্তাব জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের জন্য প্রেরণ করে। প্রকল্পে থেকে রাজস্বখাতে স্থানান্তরের প্রক্রিয়ার দীর্ঘসূত্রিতার কারণে স্টেপ প্রকল্পের অধীনে নিযুক্ত বর্তমানে কর্মরত ৭৭৭ জন শিক্ষক গত ১৮ মাস ধরে কোনো বেতন-ভাতাদি পাচ্ছেন না।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button