রাজশাহী বিভাগ

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করলেন টিএমএসএস গ্র্যান্ড হেল্থ সেক্টর

আজ ১৬ ডিসেম্বর,স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী।স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে টিএমএসএস গ্র্যান্ড হেল্থ সেক্টর বিভিন্ন কর্মসূচীর আয়োজন করেন। সকাল ৮.০০ টায় টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে জাতীয় সংগীত পরিবেশন ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর টিএমএসএস গ্র্যান্ড হেল্থ সেক্টর পরিচালিত প্রতিষ্ঠানসমুহের শিক্ষক-শিক্ষিকা, চিকিৎসক এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জানাতে প্রভাত ফেরি নিয়ে লালদহপার শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতুল্লাহ্ কমিউনিটি হাসপাতাল ভবনের নীচে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচী শুভ উদ্বোধন করা হয়। লালদহপার মাঠে খেলাধুলার আয়োজন করা হয়। এবপর দ্বিতীয়ার্ধে টিএমএসএস মেডিকেল কলেজের ১নং লেকচার গ্যালারীতে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংস্কতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতুল্লাহ্ কমিউনিটি হাসপাতালের শিশু বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ মোঃ রফিকুল ইসলাম। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএমএ বগুড়া জেলা শাখার সভাপতি ডাঃ মোঃ মোস্তফা আলম নান্নু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টিএমএসএস’র উপ-নির্বাহী পরিচালক-২ রোটা. ডাঃ মোঃ মতিউর রহমান, টিএমএসএস মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ শাহজাহান আলী সরকার, টিএমএসএস মেডিকেল কলেজের ট্রান্সফিউশন মেডিসিন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডাঃ এম,এ গফুর মন্ডল, টিএমএসএস গ্র্যান্ড হেল্থ সেক্টরের চিকিৎসা শিক্ষা ডোমেইন-১ প্রধান অধ্যাপক ডাঃ অনুপ রহমান চৌধুরী। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন টিএমএসএস গ্র্যান্ড হেল্থ সেক্টরের চিকিৎসা শিক্ষা ডোমেইন-২ প্রধান ডাঃ এএইচএম আক্তারুজ্জামান, টিএমএসএস মেডিকেল ইনষ্টিটিউট অব রিসার্চ এন্ড টেকনোলজী ও মহাস্থান মেডিকেল এ্যাসিসটেন্ট ট্রেনিং স্কুলের অধ্যক্ষ ডাঃ মোঃ আহমেদ শরীফ, টিএমএসএস কমিউনিটি প্যারামেডিক ইন্সটিটিউট এর অধ্যক্ষ সুধির চন্দ্র বণিক, এবং টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতুল্লাহ্ কমিউনিটি হাসপাতালের নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আলমগীর হোসেন সহ টিএমএসএস স্বাস্থ্য সেক্টর পরিচালিত অন্যান্য চিকিৎসা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রশাসনিক কর্মকর্তাবৃন্দ। আলোচনা সভা পরিচালনা করেন টিএমএসএস মেডিকেল কলেজের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ সজিবুর রহমান। আলোচনা সভায় সম্মাননা প্রদান করা হয় বীরমুক্তি যোদ্ধা এবং টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিটের উপদেষ্টা ডাঃ আলী আহমেদ আলমকে। আলোচনা সভায় বক্তারা মুক্তিযুদ্ধের সময়ের বিভিন্ন চিত্র তুলে ধরে বলেন বাঙালি জাতির জীবনে সবচেয়ে বড় অর্জন আজকের দিনটি। গাঁ থেকে মাটির গন্ধ গায়ে মেখে রাজনীতিতে উঠে আসা এই দরদি জয় করে নিয়েছিলেন একটি জাতির মানসপট। প্রতিবাদে-সংগ্রামে, প্রেরণায় তিনি হয়ে উঠেছিলেন একটি জাতির অহংকার, অভিভাবক, পিতা, কর্ণধার। তাঁর হাত ধরেই আসে বাঙালির স্বাধীনতা, জন্ম নেয় বাংলাদেশ। দীর্ঘ ৯ মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে ১৯৭১ সালের আজকের এই দিনে পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে মুক্ত বাতাসে নিঃশ্বাস নেয় বাঙালি জাতি। দেশের প্রতিটি প্রান্তে শুরু হয় বিজয়ের মিছিল। আনন্দ আর উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়ে পুরো বাঙালি জাতি। আজ ১৬ ডিসেম্বর ২০২১। বিজয় লাভের ৫০ বছর। বাঙালি জাতির গৌরবের দিন, মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর দিন। মুক্তিযুদ্ধে যারা শহীদ হয়েছেন তাদেরকে আজ সারাদেশে বিশেষভাবে শ্রদ্ধা জানানো হচ্ছে। ১৬ কোটি বাঙালি সশ্রদ্ধ চিত্তে স্মরণ করবে দেশের বীর সন্তানদের। যাদের ৯ মাসের সংগ্রাম ও রক্তের বিনিময়ে পেয়েছি আমাদের লাল সবুজের পতাকা। বক্তারা দেশের সংস্কৃতি, প্রকৃতি ও পরিবেশ এবং ৫০ বছরের অগ্রগতি তুলে ধরেন। আলোচনা সভা শেষে ছাত্র-ছাত্রীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে দেশাত্ববোধক গান ও নাচ পরিবেশন করেন। অনুষ্ঠানে র সভাপতি সমাপনি বক্তব্যের মাধ্যমে অতিথিসহ সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।
আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button