জাতীয়

গাজীপুরে বাড়ছে ডেঙ্গু রোগী

গাজীপুর মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে। এখন পর্যন্ত টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালের ডেঙ্গু ইউনিটে একজন পল্লী চিকিৎসক ও পুলিশ সদস্যসহ ১২ জনের ডেঙ্গু শনাক্ত হয়েছে।
হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গাজীপুরে ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হওয়ার পরই এ হাসপাতালে ১ জুলাই থেকে ২০ শয্যার ডেঙ্গু ইউনিট খোলার পর ১৫ জুলাই থেকে কার্যক্রম শুরু হয়। এসব শয্যার মধ্যে ১৫টি মেডিসিন বিভাগ, ৮টি পুরুষ, ৭টি মহিলা ও ৫টি শিশুদের।
গাজীপুর টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক মো. পারভেজ হোসেন বলেন, চার দিন আগে একজন পুলিশ সদস্যসহ ৯ জনের দেহে ডেঙ্গু শনাক্ত হলেও গত সোমবার একজন রোগী ভালো হয়ে হাসপাতাল ত্যাগ করেছেন। অন্যরা চিকিৎসাধীন। এসব রোগীর মধ্যে একজন বাদে অন্যরা গাজীপুর নগরীর বাসিন্দা। বুধবার মহানগরীর বোর্ডবাজার, পূবাইল ও টঙ্গী এলাকা থেকে একজন পল্লী চিকিৎসকসহ আরও তিন জন ডেঙ্গু রোগী এখানে ভর্তি হয়েছেন। বর্তমানে এ ইউনিটে ১১ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন। এ যাবৎ এখানে ১২ জনের দেহে ডেঙ্গু জীবাণু শনাক্ত হয়েছে।
গাজীপুর সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা যায়, মহানগরীতে ডেঙ্গু নিধন কর্মসূচি শুরু হয়েছে। ডেঙ্গু নিধন কর্মসূচি সফল করতে নগরীর বাসিন্দাদের নিজ নিজ দায়িত্বে ডেঙ্গুর জীবাণুবাহী মশার আবাসস্থল ধ্বংস করার অনুরোধ জানানো হয়েছে।
আরও জানা যায়, নগরীর কারও বাসা বা কারখানায় ডেঙ্গু মশার লার্ভা পাওয়া গেলে সিটির আইনানুয়ায়ী মালিকদের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড প্রদান করা হবে। এ জন্য নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা কাজ শুরু করেছেন।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button