জাতীয়

‘টিকা না নিয়ে বের হলে শাস্তি’ বক্তব্য প্রত্যাহার

‘টিকা নেওয়া ছাড়া ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে কেউ ১১ আগস্টের পর থেকে বাইরে বের হতে পারবে না’ মর্মে বিভিন্ন গণমাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের যে বক্তব্য প্রচার হচ্ছে তা প্রত্যাহার করেছেন তিনি। বুধবার মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়। তবে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সব নাগরিককেই পর্যায়ক্রমে ভ্যাকসিনের আওতায় নিয়ে আসা হবে বলে জানান মন্ত্রী।
এদিকে লকডাউনের পর ১৮ বছরের বেশি বয়সি নাগরিকদের টিকা না নিয়ে চলাচল ‘শাস্তিযোগ্য অপরাধ’ হবে জানিয়ে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর বক্তব্য সরকারি কোনো সিদ্ধান্ত নয় বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বুধবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘মঙ্গলবার আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকে বেশিরভাগই অনলাইনে সংযুক্ত ছিলেন, আমিও অনলাইনে সংযুক্ত ছিলাম। সেখানে আসলে এ ধরনের কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। সরকারের এ ধরনের সিদ্ধান্ত হয়নি যে, ১৮ বছরের বেশি বয়সের কেউ (টিকা না নিয়ে) বের হলে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হবে।’
অন্যদিকে বুধবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী জানান, মঙ্গলবার বৈঠকে মাস্ক পরার ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি যাতে সবাই মানে, সেটির ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। মাস্ক না পরলে যাতে তাৎক্ষণিক শাস্তি দেওয়া যায় এবং পুলিশ যাতে জরিমানা করতে পারে, আইনের মধ্যে থেকে কীভাবে সেটা করা যায়, সে বিষয়ে সবাই অভিমত দিয়েছেন।
মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রীর বক্তব্য তার ব্যক্তিগত অভিমত হতে পারে মন্তব্য করে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, সভায় এ ধরনের সরকারি কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button