জাতীয়

পি কে হালদার যেভাবে শিবশংকর হলেন

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে অভিযান চালিয়ে প্রশান্ত কুমার হালদারসহ (পি কে হালদার) চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। তার বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগ রয়েছে। তবে সেখানে তিনি নিজেকে শিবশংকর হালদার নামে পরিচয় দিতেন বলে জানিয়েছেন ইডি। পে কে হালদার ভুয়া পরিচয়ে ওই দেশের আধার কার্ড, রেশন কার্ডও তৈরি করে নিয়েছিলেন বলে ইডি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

ইডি জানায়, জালিয়াতিতে পাকাপোক্ত পি কে হালদার ভারতে শিবশংকর হালদার নামে করা পরিচয়পত্র ব্যবহার করে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের রেশন কার্ড, ভারতের ভোটার পরিচয়পত্র, আয়কর দপ্তরের পরিচয়পত্র পিএএন (প্যান), নাগরিকত্বের পরিচয়পত্র আধার কার্ড সংগ্রহ করেন। এসব কার্ড ব্যবহার করে তিনি পশ্চিমবঙ্গসহ বিভিন্ন অঞ্চলে বেশ কিছু ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খোলেন। দুই ডজনের অধিক বিলাসবহুল বাড়ি গড়ে তোলেন। এ ছাড়া বিভিন্ন জায়গায় বিপুল পরিমাণ জমিজমা কেনেন পি কে।

শনিবার (১৪ মে) তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে শুক্রবার সকাল থেকেই রাজ্যজুড়ে প্রশান্ত কুমার হালদার, প্রীতিশ কুমার হালদার, প্রাণেশ কুমার হালদার এবং তাদের সহযোগীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালায় দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা।

জানা গেছে, উত্তর ২৪ পরগনা, কলকাতা এবং দক্ষিণ ২৪ পারগনার বিভিন্ন এলাকায় পি কে হালদার ও তার সহযোগীরা স্থাবর সম্পত্তি কিনেছেন। বর্তমানে সেগুলো সিলগালা করা হয়েছে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button