খেলা

এবার ওয়ানডের চ্যালেঞ্জে বাংলাদেশ

হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে শুক্রবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে মাঠে নামবে টাইগাররা। বাংলাদেশ সময় বেলা দেড়টায় শুরু হবে ম্যাচ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচে ২২০ রানের বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছে সফররত বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল।টেস্ট জয়টা যত সহজে এসেছে, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডেতে জয়টা অত সহজ হবে না বাংলাদেশের জন্য। এটি বুঝেছেন তামিম ইকবালও। তাই হারারের কন্ডিশনে বাংলাদেশের দরকার একটি সুন্দর সকাল। যেটি বাংলাদেশের পক্ষেই চাইবেন টাইগার অধিনায়ক। প্রথম ওয়ানডে জিততে সকালের প্রথম এক ঘন্টা হারারের পেসবান্ধব উইকেট সামলানোর দিকে নজর বাংলাদেশের ওয়নডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের। আগে বোলিং করলে প্রথম ঘন্টা কাজে লাগানোর তাগিদ দিলেন বোলারদের। আর ব্যাট করতে নামলে সেটাও চ্যালেঞ্জিং হবে বলে মানছেন অধিনায়ক।ম্যাচপূর্ব অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে তামিম বলেন, ‘জিম্বাবুয়েতে ২-৩টা সিরিজ খেলেছি তবে ৬-৭ বছর আগে। সাড়ে নয়টায় ম্যাচ শুরু হবে, তাই বোলাররা শুরুতে সুবিধা হবে বিশেষ করে প্রথম ঘণ্টায়। এটা চ্যালেঞ্জিং হবে যদি আগে ব্যাট করি। আগে ব্যাট করলে সাবধান থাকতে হবে। আগে বোলিং করলে এই এক ঘণ্টা কাজে লাগাতে হবে।’জিম্বাবুয়ে সফরে প্রতিটি ম্যাচই জিততে চান তামিম। এক্ষেত্রে প্রথম ম্যাচের জয়কে গুরুত্বপূর্ণ আখ্যা দিয়েছেন তিনি। তামিম জানান, ‘ভালো শুরু করাই আমার কাছে কী পয়েন্ট। আমাদের সব সুযোগ কাজে লাগাতে হবে। আমি তো চাইব প্রত্যেক ম্যাচই জিততে। কিন্তু দিন শেষে এটা ক্রিকেট। আশাবাদী সিরিজ জিতব। কালকের প্রথম ম্যাচই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।’জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজটি ওয়ানডে সুপার লিগের অংশ। তাই এই সিরিজ থেকে ৩০ পয়েন্ট তুলে নেওয়া টাইগারদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ইতোমধ্যে ৯ ম্যাচে ৫ জয়ে ৫০ পয়েন্ট নিয়ে সুপার লিগের পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে আছে বাংলাদেশ।

স্বাগতিকদের বিপক্ষে শেষ ১৬ ম্যাচের একটিতেও হারেননি তামিম-সাকিবরা। বাংলাদেশের বিপক্ষে সবশেষ ২০১৩ সালে জয় পেয়েছিল জিম্বাবুয়ে। দুদলের ওয়ানডে পরিসংখ্যানে অনেকটাই এগিয় রয়েছে বাংলাদেশ দল। একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে দুদলের মুখোমুখি হয়েছে মোট ৭৬ বার। যেখানে ৪৮টি ম্যাচেই জয় পেয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। অন্যদিকে জিম্বাবুয়ে জিতেছে মাত্র ২৮টি ম্যাচে।

তবে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে বরাবরই শক্তিশালী। তাই সিরিজ জিততে হলে দলীয় পারফরম্যান্সের কোনো বিকল্প নেই।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button