খেলা

টোকিও অলিম্পিক ভিলেজে করোনার ধাক্কা

ছয়দিন পর মাঠে গড়াবে টোকিও অলিম্পিক। কিন্তু বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়াযজ্ঞ শুরুর আগেই কোভিড ১৯ এর ধাক্কা খেল।

অলিম্পিক ভিলেজে প্রথম করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি পাওয়া গেছে। এরই মধ্যে তাকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। জাপান গণমাধ্যমের খবর, বিদেশি একজনের শরীরে করোনা পাওয়া গেছে। তবে তার পরিচয় প্রকাশ করেনি আয়োজকরা।

গতবছর টোকিও অলিম্পিক হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে তা পিছিয়ে দেওয়া হয়। আগামী ২৩ জুলাই অলিম্পিকের পর্দা উঠবে। শেষ হবে ৮ আগস্ট। প্যারা অলিম্পিক চলবে ২৪ আগস্ট থেকে ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

আয়োজক কমিটির মুখপাত্র মাসা তাকায়া বলেন, ‘গেমস ভিলেজে প্রত্যেকেরই স্ক্রিনিং টেস্ট হচ্ছে। আর সেখানেই একজন করোনা পজিটিভ এসেছে। তাকে একটি হোটেলে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। কোভিড যাতে না ছড়ায়, সে ব্যাপারে আমরা সতর্ক। আর একান্তই সংক্রমণ ঢুকে পড়লে আমাদের বিকল্প পরিকল্পনাও আছে।’

টোকিও অলিম্পিকের সিইও তোশিরামোটো বলেন, ‘আমরা কোভিড পজিটিভ হওয়া ব্যক্তির কোনো তথ্য পাইনি। তিনি ভ্যাকসিন নিয়েছেন কি না নিশ্চিত নই। অলিম্পিক ভিলেজে কেউ কোভিড আক্রান্ত হলে তাকে আইসোলেশনের পাঠানো হবে এবং তার সংস্পর্শে যারা আসবে তাদেরও দূরত্ব মেনে চলতে হবে। ভিলেজে প্রত্যেকদিন কোভিড টেস্ট করানো হবে।’

২০০ এর বেশি দেশ থেকে প্রায় ১১০০০ অ্যাথলেট অলিম্পিকে অংশগ্রহণ করবে। তাদের সবার কোভিড সুরক্ষায় বিশাল অঙ্কের অর্থ ব্যয় হচ্ছে আয়োজকদের। জাপানের গণমাধ্যমের খবর, টোকিও অলিম্পিক পরিচালনা করতে ২৮০ কোটি ডলার খরচের হিসেব দিয়েছে অলিম্পিক কমিটি। যার মধ্যে করোনা প্রতিরোধেই ব্যয় ধরা হয়েছে ৯০ কোটি ডলার।

করোনার তৃতীয় ঢেউ চলাকালিন টোকিও অলিম্পিক আয়োজন করায় বেশ সমালোচনা হচ্ছে। জাপানে করোনা পরিস্থিতি ভালো না। প্রতিদিনই সংক্রমণ বাড়ছে। বাড়ছে মৃত্যুর তালিকাও। অলিম্পিক বাতিল চেয়ে রাস্তায় সাধারণ মানুষ, চিকিৎসকরা নেমেছিল। কিন্তু সেসব কাজে আসেনি।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button