খেলা

পাকিস্তান ক্রিকেটের নোংরা রাজনীতি সামনে আনলেন রাজ্জাক

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন দেশটির সাবেক ক্রিকেটার আব্দুল রাজ্জাক। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, ২০০৭ সালে টি-২০ বিশ্বকাপে কেন তাকে পাকিস্তান ক্রিকেট দলে দেখতে পাওয়া যায়নি।

পাকিস্তানের সাবেক এই অলরাউন্ডার জানালেন, ২০০৭ সালে ৫০ ওভারের ক্রিকেট বিশ্বকাপে তিনি একদমই ফিট ছিলেন না। সেকারণে পাকিস্তান ক্রিকেট দল তাকে নির্বাচন করেনি। পাশাপাশি রাজ্জাক আরও জানিয়েছেন, ওই বছরের শেষের দিকে টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য একদম ফিট ছিলেন তিনি। কিন্তু তবুও তাকে দলে নেওয়া হয়নি।

যখন তিনি পাকিস্তান ক্রিকেট দলের তৎকালীন অধিনায়ক শোয়েব মালিকের কাছে দল থেকে তাঁর বাদ পড়ার কারণ সম্পর্কে জানতে চান, মালিক তাকে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের মুখ্য নির্বাচক সালাহ উদ্দিন সালোর সঙ্গে দেখা করার পরামর্শ দেন। সেই সময় সালোই তাকে জানিয়েছিলেন, রাজ্জাককে যে দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে, এই সিদ্ধান্তটা একান্তভাবেই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের ছিল।

 

সম্প্রতি আব্দুল রাজ্জাক একটি সাক্ষাতকারে বলেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে ২০০৭ সালে ক্রিকেট বিশ্বকাপের সময় আমি একদমই ফিট ছিলাম না। সেই কারণে এই আসরে আমি অংশগ্রহণ করতে পারিনি। তবে বিশ্বকাপের পরেই আমি ফিট হয়ে উঠি। কিন্তু তারপরেও আমাকে টি-২০ বিশ্বকাপের দলে রাখা হয়নি।

তিনি আরও বলেন, তখন আমি দলের অধিনায়ক শোয়েব মালিকের কাছে কারণ জানতে চাই। তবে সে আমাকে দলের প্রধান নির্বাচক সালাহ উদ্দিন সালোর সঙ্গে দেখা করার পরামর্শ দেয়। সালাহ উদ্দিন সালো আমাকে জানিয়েছিল, এই সিদ্ধান্তটা একদমই বোর্ডের ছিল।

আব্দুল রাজ্জাক আরও জানিয়েছেন, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান নাসিম আশরাফের সঙ্গে তিনি সুসম্পর্ক বজায় রাখার চেষ্টা করতেন। কিন্তু আশরাফ কেন যে তাঁকে অপছন্দ করতেন, সেটা তার মাথায় ঢুকত না।

রাজ্জাক যোগ করে বলেন, তৎকালীন চেয়ারম্যান নাসিম আশরাফ আমাকে একদমই পছন্দ করতেন না। কেন আমাকে দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল, সেই কারণ আমি আজ পর্যন্ত জানি না। বস্তুতপক্ষে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্য়ান হওয়ার আগে দুই বছর তিনি দলের সঙ্গেই যুক্ত ছিলেন। তার সঙ্গে আমার যথেষ্ট ভালো সম্পর্ক ছিল। কেন আমাকে অপছন্দ করত, সেটা এখনও আমি জানি না।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button