খেলা

​শঙ্কা কাটছে না মুস্তাফিজকে নিয়ে

টেস্ট দলে ছিলেন না পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। জিম্বাবুয়েতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে পেস বোলিং বিভাগে নেতৃত্ব দেওয়ার কথা ছিল তার। তবে সিরিজের আগে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে গিয়ে পায়ের গোড়ালির চোটে পড়েন এই বাঁহাতি বোলার। ব্যথা না কমায় বাংলাদেশের জার্সিতে সিরিজের প্রথম ম্যাচ খেলতে পারেননি তিনি। আগামীকাল (রোববার) দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মাঠে নামবে টাইগাররা, এ ম্যাচেও মুস্তাফিজের খেলা নিয়ে আছে শঙ্কা।

 

জিম্বাবুয়েতে থেকে পাঠানো ভিডিও বার্তায় অধিনায়ক তামিম ইকবাল বলেন, ‘মুস্তাফিজেরটা ব্যাপারটা এখনো ফিফটি-ফিফটি। আজ বিকেলের দিকে (স্থানীয় সময়) আরেকটু ভালো বলতে পারব। এছাড়া সবাই ফিট।’

 

গত বুধবার জিম্বাবুয়ে একাদশের বিপক্ষে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের হয়ে মাঠে নেমেছিলেন মুস্তাফিজ। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করা জিম্বাবুয়ের ইনিংসের প্রথম ওভারে বিপত্তি বাঁধে। ওভারের পঞ্চম বলটি করতে গিয়ে গোড়ালিতে চোট পান এই বাঁহাতি পেসার। এজন্য তাকে মাঠ থেকে তুলে নেওয়া হয়। খেলা শেষে হোটেলে ফিরেও গোড়ালির ব্যথায় অস্বস্তিবোধ করেন মুস্তাফিজ। পরে তাকে আইস থেরাপি দেওয়া হয়। সেই চোট এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেননি তিনি।

 

এদিকে প্রথম ওয়ানডেতে ব্যথা নিয়ে খেলে স্বস্তি বোধ না করলেও এই পরিস্থিতিতেই খেলা চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত বজায় রেখেছেন তামিম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে ১০২ রানের অনবদ্য এক ইনিংস খেললেও হাতে ব্যথা পাওয়ায় পরে ফিল্ডিংয়ে নামতে পারেননি লিটন দাস। তার বদলে পুরো ফিল্ডিং সেশন উইকেটের পিছনে গ্লাভস হাতে ছিলেন নুরুল হাসান সোহান।

 

তামিম জানালেন, দ্বিতীয় ম্যাচে ফিট লিটনকেই পাবে দল। অধিনায়ক বলেন, ‘আমার ব্যাপারে তো কম বেশি বলা হয়ে গেছে। এই তিনটা ম্যাচই কম বেশি ঝুঁকি নিয়ে খেলতে হচ্ছে। কিন্তু আমি কোনোরকমে ম্যানেজ করছি। লিটনের অবস্থা আমি যতটা জানি এখন আগের চেয়ে অনেক ভালো। সে হয়তো আগামীকালের জন্য ফিট।’

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button