আন্তর্জাতিক

ইসরায়েলকে লেবাননের হুঁশিয়ারি

লেবাননের মাটিতে যে কোনো ধরনের ইসরায়েলি আগ্রাসন প্রতিরোধের হুঁশিয়ারি দিয়েছে বৈরুত। লেবাননের প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন বলেছেন, ইসরায়েল যদি তার দেশের বিরুদ্ধে কোনও রকমের আগ্রাসন চালায় তাহলে লেবাননও নিজের বৈধ অধিকার অনুযায়ী পাল্টা জবাব দেবে। আর এ ধরনের আগ্রাসনের পরিণতির জন্য ইসরায়েলকেই দায়িত্ব নিতে হবে। শুক্রবার রাজধানী বৈরুতের বাবদা প্যালেসে লেবানন বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ সমন্বয়কারী জ্যান কুবিসের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।
২০০৬ সালে ইসরায়েল এবং লেবাননের শিয়াপন্থী সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহর মধ্যকার যুদ্ধবিরতির জন্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে যে ১৭০১ নম্বও প্রস্তাব পাস হয়েছিল তার প্রতি লেবানন অনুগত থাকবে বলেও উল্লেখ করেন আউন।

দক্ষিণ লেবাননে সম্প্রতি ইসরায়েল যে ড্রোন হামলা চালিয়েছে সে সম্পর্কে মিশেল আউন বলেন, এ ঘটনার মধ্য দিয়ে ইসরায়েল লেবাননের সীমানা লংঘন করছে। একইসঙ্গে তারা জাতিসংঘ প্রস্তাবকেও অমান্য করছে।

বৈঠকে জাতিসংঘের বিশেষ দূত বলেন, নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য দেশগুলো লেবানন সীমান্তে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্র্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। এটি অব্যাহত থাকবে। তিনি লেবাননের স্পিকার নাবিহ বেরির সঙ্গেও আলাদাভাবে বৈঠক করেন। এ সময় নাবিহ বেরি জাতিসংঘ কর্মকর্তাকে বলেন, সম্প্রতি লেবাননের ওপর ইসরায়েল যে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল তার মাধ্যমে নিরাপত্তা পরিষদের ১৭০১ নম্বর প্রস্তাব লঙ্ঘিত হয়েছে। এ ব্যাপারে ইসরায়েলের কাছে জবাব চাওয়া উচিত।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button