রাজশাহী বিভাগসারাদেশ

বগুড়ার পছন্দের মেয়ের বিয়ে হওয়ায় অভিমানে কলেজ ছাত্রের আত্মহত্যা

বগুড়ার শাজাহানপুরে পছন্দের মেয়েকে বিয়ে করতে না পেরে অভিমানে গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে ফয়সাল হোসেন ওরফে লিটন (২০) নামের এক কলেজছাত্র আত্মহত্যা করেছেন।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দিবাগত রাত ১২টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ফয়সাল হোসেন উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের মানিকদিপা নিশানচড়া গ্রামের কৃষক শফিকুল ইসলামের ছেলে। তিনি বগুড়া সরকারি শাহ-সুলতান কলেজে ডিগ্রিতে পড়ালেখা করতেন।

পরিবার ও স্থানীয়রা জানান, স্থানীয় এক মেয়ের সঙ্গে ফয়সাল হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু ওই মেয়ের অন্যত্র বিয়ে হয়ে গেলেও ফয়সাল হোসেন তাকে ভুলতে পারছিলেন না। এনিয়ে পারিবারিক ভাবে বাবা-মার সঙ্গে মনোমালিন্য হওয়ার একপর্যায়ে অভিমান করে মঙ্গলবার রাত ৯ টার দিকে ফয়সাল হোসেন গ্যাস ট্যাবলেট খান। কিছুক্ষণ পর রক্ত বমি শুরু হলে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে রাতেই বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ভর্তি করা হয়। সেখানে রাত ১২টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

শাজাহানপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button