সারাদেশ

বড়লেখা সীমান্ত: ভারতীয় অনুপ্রবেশ ঠেকাতে বিজিবির জোর নজরদারি

ভারতের আসামে চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা (এনআরসি) প্রকাশের পর মৌলভীবাজারের বড়লেখা সীমান্তে নজরদারি জোরদার করেছে বিজিবি। ভারতীয়দের অনুপ্রবেশ ঠেকাতে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। শনিবার আসামের বহুল আলোচিত এই নাগরিক তালিকা প্রকাশিত হয়।

তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন ১৯ লাখ নাগরিক। বাদ পড়া ভারতীয়রা যাতে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করতে না পারে, সেজন্য এই নজরদারি।

ভারতের আসাম রাজ্যের সঙ্গে সরাসরি সীমান্ত রয়েছে সিলেটের জকিগঞ্জ, কানাইঘাট, বিয়ানীবাজার উপজেলা এবং মৌলভীবাজারের বড়লেখা, জুড়ী ও কুলাউড়া উপজেলার। বড়লেখা, জুড়ী ও কুলাউড়ার ১৩৩.৫ কিলোমিটার সীমান্ত এলাকা বিজিবি ৫২ ব্যাটালিয়নের (বিয়ানীবাজার) আওতাধীন।

রোববার সরেজমিন দেখা যায়, বড়লেখা উপজেলার বিজিবির লাতু বিওপির আওতাধীন বোবারথল, বিওসি কেছরিগুলসহ কয়েকটি সীমান্তে বিজিবি সদস্যরা কড়া টহল দিচ্ছেন। বিজিবি ৫২ ব্যাটালিয়নের (বিয়ানীবাজার) অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়জুর রহমান জানান, গত বছর ভারতে এনআরসির খসড়া তালিকা প্রকাশের পর হেডকোয়ার্টার্সের নির্দেশে সতর্কাবস্থায় ছিল বিজিবি। এবার পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশের পর সীমান্তে আরও বেশি সতর্কাবস্থায় রয়েছে বিজিবি।

আসামের লোকজন বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করলে তা প্রতিহত করতে প্রস্তুত রয়েছে বিজিবি। সীমান্ত এলাকায় বসবাসকারী নাগরিকদের ভীত না হয়ে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। এছাড়া সীমান্তের যে কোনো এলাকা দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করা হলে তা দ্রুত বিজিবিকে জানাতে বলা হয়েছে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button