জাতীয়

তিন ঘণ্টার চেষ্টায় ডিইপিজেডের কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে

সাভারের আশুলিয়ায় পুরাতন ঢাকা রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকার (ডিইপিজেড) একটি কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ডিইপিজেড ও সাভার ফায়ার সার্ভিসের ৯টি ইউনিট প্রায় তিন ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

শনিবার সন্ধ্যা ৬টা ৫০ মিনিটের দিকে আশুলিয়ার পুরাতন ডিইপিজেডের স্টিলের শেডের তৈরি একতলা ভবনের প্যাকজার বাংলাদেশ লিমিটেড নামের কারখানায় এই আগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

ডিইপিজেড ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা জানান, সন্ধ্যা ৬টা ৫০ মিনিটে প্যাকজার বাংলাদেশ লিমিটেড কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের খবর পায় ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিস।

পরে ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন। আগুনের তীব্রতা বেড়ে গেলে ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের আরো ৩টি এবং সাভার ফায়ার সার্ভিসের দুটি ও ঢাকা সদর দপ্তর থেকে আরো ১টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। কারখানাটিতে বিভিন্ন পোশাকের লেবেল, স্টিকার, হ্যাংট্যাগ জাতীয় মালামাল তৈরি করা হয়। এছাড়া ওয়্যারহাউজে প্যাকেজিং মালামাল ও কেমিক্যাল ছিল। তিন ঘণ্টার চেষ্টার পর রাত ১০টার দিকে দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

 

ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন কর্মকর্তা রাজিব আহমেদ বলেন, আগুন নিয়ন্ত্রণে ৯টি ইউনিট কাজ করেছে। কারখানাটিতে লেবেল, স্টিকার, হ্যাংট্যাগ জাতীয় মালামাল তৈরি করা হতো। কারখানার স্টোর থেকে আগুনের সূত্র। পরে কারখানার ভেতরে ছড়িয়ে পড়ে। তাদের গোডাউন, অফিস ও কারখানা একসঙ্গেই। তবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। এছাড়া তদন্ত ছাড়া ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা সম্ভব নয় বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে ডিইপিজেডের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) আব্দুস সোবহান কালের কণ্ঠকে বলেন, আজ প্রতিষ্ঠানটির উৎপাদন কার্যক্রম বন্ধ ছিল। প্রতিষ্ঠানটিতে দুই শিফটে ৪০০ জন শ্রমিক কাজ করে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। মূলত তাদের গোডাউন থেকে আগুনের সূত্রপাত। প্যাকজারের একটি লেবেল তৈরি কারখানা।

কম্পানিতে আগুনের ঘটনা ঘটে। এটি একটি আমেরিকান কম্পানি, বিশ্ববিখ্যাত লেবেল তৈরি কম্পানি। কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button