খেলা

অলিম্পিকেও কি ‘চাক দে’

বহুল আলোচিত ‘চাক দে ইন্ডিয়া’ সিনেমার কথা অনেকের স্মৃতিতেই টাটকা। ২০০৭ সালে নির্মিত এই সিনেমাটি পেয়েছিল দুনিয়াজোড়া খ্যাতি। ওই সিনেমায় বিশ^কাপ হকিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে ভারতীয় নারী হকি দল। বাস্তবতা হচ্ছে সেই প্রত্যাশার জায়গায় এর আগে কখনই পৌঁছাতে পারেনি ভারতীয় হকি। তবে এবার টোকিও গেমসে বিস্ময় সৃষ্টি করে চলেছে ভারতের নারী হকি দল। অলিম্পিক ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সেমিফাইনালে উঠেছে তারা। আর দুটো ধাপ পেরোতে পারলেই ‘চাক দে’র চিত্রায়ণ হবে মাঠেও।
সোমবার শেষ আটের লড়াইয়ে ভারতীয় নারী হকি দল হারিয়েছে তিনবারের চ্যাম্পিয়ন নারী হকির পরাশক্তি অস্ট্রেলিয়াকে। আন্তর্জাতিক মিডিয়া ঘটনাটিকে দেখছে বিস্ময় হিসেবে। কেননা বর্তমানে নারী হকির র‌্যাঙ্কিংয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে অস্ট্রেলিয়া।
গতকাল ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে ১-০ গোলে হারিয়েছে ভারত। খেলার ২২ মিনিটের মাথায় গোলটি করেন গুজরিত কাউর। এরপর নিজেদের রক্ষণ সামলে রেখেই মাঠ ছাড়ে ভারতীয়রা। আজ ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষ আর্জেন্টিনা নারী হকি দল।
পরাশক্তি অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর পর থেকেই নতুন করে সামনে চলে এসেছে ‘চাক দে ইন্ডিয়া’ চলচ্চিত্রটি। নড়েচড়ে উঠেছে বলিউডও। ভারতীয় নারী হকি দলের কাছ থেকে স্বর্ণ দাবি করে টুইট করেছেন বলিউড বাদশাখ্যাত শাহরুখ খান।
ব্যক্তিগতভাবে ক্রিকেটপ্রেমী হলেও ‘চাক দে’ সিনেমা জুড়েই যে শাহরুখ খান। ওই সিনেমায় নারী হকি দলের কোচ ছিলেন ‘কবির খান’। আর কোচ ‘কবির খান’ চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন বলিউড বাদশা শাহরুখ।
মজাটা হয়েছে ভারতীয় নারী হকি দলের ডাচ কোচ সোর্দ মারিনের এক টুইটকে কেন্দ্র করে। টিম বাসে বিজয়ী শিষ্যদের সঙ্গে নিজের ছবি টুইট করে মারিনো লেখেন, সরি ফ্যামিলি। আই কামিং অ্যাগেইন লেটার। এর পাল্টা টুইট করে শাহরুখ লেখেন, দেরি হলেও সমস্যা নেই। শুধু ফিরে আসার জন্য কয়েক কোটি পরিবারের জন্য স্বর্ণ নিয়ে এসো। বলিউড বাদশা টুইটারের শেষে লিখেছেন, ফ্রম এক্স কোচ কবির খান। নিজেকে ভারতীয় হকি দলের সাবেক কোচ হিসেবে উল্লেখ করেছেন বলিউড বাদশা। কম যাননি বর্তমান কোচ মারিনও।
শাহরুখের টুইটের জবাবে লিখেছেন, ভালোবাসা ও সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ। এই ডাচ কোচ টুইটারের শেষে লিখেছেন, ফ্রম দ্য রিয়েল কোচ।
ভারতের হকির সোনালি অতীত আজ অস্তমিত। অলিম্পিক হকিতে তারা সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ১৯৮০ সালে। দীর্ঘদিন ধরেই আন্তর্জাতিক হকিতে পেছনের সারিতে অবস্থান দলটির। এবার টোকিও গেমসে নতুন করে জেগে ওঠার সম্ভাবনা জাগিয়েছে ভারত। ছেলেদের হকিতেও সেমিফাইনালে উঠেছে দলটি।
আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button