শিক্ষাঙ্গন

‘কয়েকজন উপাচার্যের জন্য পুরো শিক্ষক সমাজ কলঙ্কিত’

কয়েকজন উপাচার্যের জন্য পুরো শিক্ষক সমাজ কলঙ্কিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ও ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ চৌধুরী।

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) গণমাধ্যমকে এসব কথা জানান ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ চৌধুরী।

তিনি জানান, সমাজকে দুর্নীতির রাহু গ্রাস করেছে। মূল্যবোধের এই অবক্ষয়ে সংক্রমিত হয়েছে দেশের উচ্চশিক্ষার বিদ্যাপীঠ বিশ্ববিদ্যালয়ও। কয়েকজন উপাচার্যের জন্য পুরো শিক্ষক সমাজ কলঙ্কিত হয়েছে। আমি সত্যিই খুব হতাশ, আমি ক্ষুব্ধ।

অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ চৌধুরী জানান, চারদিক যখন পঙ্কিলতায় ভরে যাবে তখন আলোর পথ দেখাবে বিশ্ববিদ্যালয়। শিক্ষকতা পেশায় কেউ এলে দেনা-পাওনা নিয়ে তার অনৈতিক চিন্তাভাবনা করার কথা নয়। কিন্তু কয়েকজন শিক্ষক বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ দায়িত্বে থেকেও অন্যায়ে জড়িয়ে পড়ছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বায়ত্তশাসন এবং আত্মমর্যাদার স্থানকে অবনমিত করেছেন। আমার বিশ্বাস করতে কষ্ট হয় টাকা-পয়সার লেনদেনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মধ্যস্থতা করেছেন। ডাকসু নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য নিয়ম ভেঙে ছাত্র ভর্তি করছেন।

শিক্ষকদের এসব আচরণে পুরো শিক্ষাব্যবস্থা প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে উল্লেখ করে এ শিক্ষাবিদ জানান, শিক্ষার্থী প্রশ্ন করলে তাকে বহিষ্কার করার মতো কাজ করছেন। শিক্ষকদের এসব আচরণে পুরো শিক্ষাব্যবস্থা প্রশ্নবিদ্ধ হয়। শিক্ষকদের আচরণ হবে পরিশীলিত, মার্জিত। কারণ তারা মানুষ গড়ার কারিগর। তাই কেউ যদি নিজের স্বার্থে বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানকে ভূলুণ্ঠিত করে তা মেনে নেওয়া যাবে না। স্বায়ত্তশাসনের সুযোগে যা ইচ্ছা করা যাবে না। প্রয়োজনে নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটি গঠন করে দোষীদের শাস্তির ব্যবস্থা করার আহ্বান জানান তিনি।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button