আন্তর্জাতিক

আত্মসমর্পণ না করে প্রাণ দিলেন ইউক্রেইনের ১৩ সেনা

তাদের বীরত্বের এ নজির সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের আবেগে ভাসাচ্ছে; ওই রক্ষীদের তেজোদ্দীপ্ত শেষ কথাগুলো টুইটার, টিকটক ও অন্যান্য সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

ইউক্রেইনের ক্ষুদ্র ওই দ্বীপটি রক্ষায় পাহারারত ওই সেনারা রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজের কাছে আত্মসমর্পণে অস্বীকৃতি জানায়, গোলাবর্ষণে নিহত হওয়ার আগ পর্যন্ত তারা নিজেদের অবস্থান ধরে রেখেছিল।

বৃহস্পতিবার দ্বীপটির দখল নিতে আসা রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ ওই ইউক্রেনীয় সেনাদের উদ্দেশ্যে বলে, “এটা একটি সামরিক যুদ্ধজাহাজ। এটা রাশিয়ার একটি সামরিক যুদ্ধজাহাজ। রক্তপাত ও অপ্রয়োজনীয় প্রাণহানি এড়াতে আপনাদেরকে অস্ত্র সমর্পণ ও আত্মসমর্পণের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে, অন্যথায় আমরা গোলাবর্ষণ করবো। শুনছেন আপনারা?”

এর জবাবে ইউক্রেইনীয় এক রক্ষী বলেন, “রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ, গো ফা… ইউরসেলফ!”

এরপর রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ থেকে মুহুর্মুহু গোলাবর্ষণ করা হলে তারা সবাই নিহত হন।

ইউক্রেইনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এই রক্ষীদের বীরত্বের প্রশংসা করেছেন এবং তাদেরকে মরণোত্তর যুদ্ধবীর সম্মাননায় ভূষিত করার ঘোষণা দিয়েছেন।

“আমাদের জিমিনি (স্নেক আইল্যান্ড) দ্বীপ রক্ষার দায়িত্বে থাকা রক্ষীরা শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত লড়েছেন এবং নায়কোচিত মৃত্যুবরণ করেছেন। তারা আত্মসমর্পণ করেননি।

“তাদের সবাইকে মরণোত্তর হিরো অব ইউক্রেইন খেতাব দেওয়া হবে। যারা ইউক্রেইনের জন্য জীবন দিয়েছেন, তারা চিরস্মরণীয়,” বলেছেন জেলেনস্কি।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button