আন্তর্জাতিক

ইসরায়েলের ৭ম দিনের হামলায় ৪ ফিলিস্তিনি নিহত

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় রোববার সকালে টানা সপ্তম দিনের মতো চালানো ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত চার জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত কয়েক ডজন। গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে দুটি আবাসিক ভবন।

একই সঙ্গে এই হামলায় হামাস প্রধান ইয়াহিয়া আল-সিনওয়ারের বাসভবনও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে আলজাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

শনিবার ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এক ভিডিও বার্তায় গাজায় ‘যতদিন প্রয়োজন ততদিন পর্যন্ত’ হামলা চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন। তার এ ঘোষণার পর পরই গাজায় নতুন করে হামলার এ খবর পাওয়া গেলো।

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর বার্তার বিপরীতে হামাস নেতা ইসমাইল হানিয়া বলেন, “প্রতিরোধ জারি থাকবে।”

ফিলিস্তিনের মুক্তিকামী সংগঠন হামাসের ছোঁড়া রকেট ধ্বংস করতে ইসরায়েল তাদের ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বংসী পদ্ধতি আয়রন ডোম ব্যবহার করছে।

শনিবার ফিলিস্তিনের এক শরণার্থী শিবিরে ইসরায়েলের মিসাইল হামলায় আট শিশুসহ অন্তত ১০ জন ফিলিস্তিনি নিহত হন। ওই হামলায় ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী গাজায় ১২ তলা একটি ভবনও গুঁড়িয়ে দেয়। যেখানে আলজাজিরা ও বার্তা সংস্থা এপিসহ কয়েকটি গণমাধ্যমের কার্যালয় ছিল।

গাজা উপত্যকায় গত এক সপ্তাহ ধরে চলা ইসরায়েলি হামলায় ৪১ শিশুসহ এ পর্যন্ত মোট ১৪৯ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৯৫০ জনের বেশি।

এ ছাড়া অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বাহিনী অন্তত ১৩ জন ফিলিস্তিনি নাগরিককে হত্যা করেছে।

আর এই হামলায় নিহত ইসরায়েলি নাগরিকের সংখ্যা প্রায় ১০ জন।

ফিলিস্তিন-ইসরায়েল বিষয়ে রোববার অনুষ্ঠেয় জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে।

রোববার দ্য জেরুসালেম পোস্টে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশেষ করে গাজায় গণমাধ্যম কার্যালয়গুলোতে সরাসরি হামলার পর সংঘর্ষ থামাতে আন্তর্জাতিক মহলের আর্জির মধ্যে নিরাপত্তা পরিষদের এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button