আন্তর্জাতিক

ভারতের সাময়িক উৎপাদন বন্ধ রাখবে মারুতি

ভারতের অর্থনৈতিক সঙ্কট ক্রমশই বাড়ছে। সর্বশেষ এটি প্রকাশ পেল দেশটির বৃহত্তম গাড়ি তৈরির কোম্পানি মারুতি সুজুকি গাড়ি তৈরির কাজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ততে।

বুধবার সকালে মারুতি জানিয়েছে, আগামী ৭ সেপ্টেম্বর ও ৯ সেপ্টেম্বর- এই দু’‌দিন হরিয়ানার গুরুগ্রাম ও মানেসারে দুটি গাড়ি তৈরির কারখানায় সমস্ত কাজ বন্ধ রাখা হবে। এই দু’‌দিন উ‍‌ৎপাদন বন্ধ থাকবে।

গাড়ি শিল্প ভারতের অর্থনীতির একটি বড় সূচক। এই শিল্পে কর্মী ছাঁটাই, উৎপাদন কমে যাওয়ার খবর আগেই শোনা গিয়েছে। কারণ গাড়ির বিক্রি আগের চেয়ে অনেক কমেছে দেশটিতে। গত আগস্ট মাসেই মারুতি ৩৩.‌৯৯ শতাংশ উৎপাদন কমিয়ে দিয়েছে। শুধু আগস্ট মাসেই নয়, গত সাত মাস ধরেই গাড়ির উৎপাদন একটু একটু করে কমিয়েছে মারুতি কোম্পানি।

গত রোববার মারুতি কোম্পানি জানিয়েছে, আগস্ট মাসে কোম্পানির বিক্রি এক তৃতীয়াংশেরও বেশি কমেছে। গত বছর আগস্ট মাসে মারুতি কোম্পানির যা বিক্রি হয়েছিল, তার চেয়ে ৩৪.‌৩ শতাংশ কম বিক্রি হয়েছে এই বছর আগস্টে। শুধু মারুতি নয়, অলটো ও ওয়াগনার কোম্পানির বিক্রি গত বছরের তুলনায় এ বছর ৭১.‌৮ শতাংশ কমে গিয়েছে।

সুইফ্ট, সেলেরিও, ইগনিস, ডিজায়্যার কোম্পানির বিক্রি প্রায় ২৩.‌৯ শতাংশ কমে গিয়েছে। গত বছরের তুলনায় এবছর গাড়ি রপ্তানিও ১০.‌৮ শতাংশ কমে গিয়েছে।

ভারতের গাড়ি শিল্পে এমন পরিস্থিতি আগে কোনদিন হয়নি বলেই মনে করছেন দেশটির বাণিজ্য বিশেষজ্ঞরা। গাড়ির বিক্রি নেই। ফলে উৎপাদন কমিয়ে দিচ্ছেন কোম্পানিক মালিকেরা। খরচ কমাতে কর্মী ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নিতেও বাধ্য হচ্ছেন তারা। অর্থনীতি সামাল দিতে মোদি সরকার যে হিমশিম খাচ্ছে তা আরো স্পষ্ট হচ্ছে এই ঘটনায়।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button