আন্তর্জাতিক

সৌদি আরবের তেল স্থাপনার ওপর হামলা

সৌদি আরবের তেল স্থাপনার ওপর হামলার ব্যাপারে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ জোরালো পদক্ষেপ নেবে—এমনটা আশা করছে যুক্তরাষ্ট্র। এ হামলার জন্য তারা ইরানকে দায়ী করছে। গতকাল মঙ্গলবার মার্কিন এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এ কথা জানান বলে এএফপির খবরে বলা হয়েছে।

মার্কিন ওই কর্মকর্তা বলেন, নিরাপত্তা পরিষদের পদক্ষেপের প্রচেষ্টায় সৌদি আরবের এগিয়ে আসা প্রয়োজন। তবে তার আগে নিজেদের প্রমাণের সপক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের প্রয়োজনীয় তথ্য প্রস্তুত করতে হবে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, এ হামলার ব্যাপারে ‘আমরা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ভূমিকার দিকে তাকিয়ে আছি।’ তিনি বলেন, সৌদি আরব যে হামলার শিকার হয়েছে, বিশ্বব্যাপী এর একটি প্রভাব পড়বে। আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তার হুমকি মোকাবিলার লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠা করা হয় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। এ ক্ষেত্রে কী ধরনের পদক্ষেপে নেওয়া যেতে পারে, সে ব্যাপারে তিনি নির্দিষ্ট করে কিছু বলেননি তিনি। তবে এ বিষয়ে পরবর্তী করণীয় ঠিক করতে তারা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে চেষ্টা চালাবেন বলে জানিয়েছেন। সেখানে রাশিয়া ও চীনের ভেটো ক্ষমতা রয়েছে। তারা ইরানের বিরুদ্ধে ডোনাল্ড ট্রাম্পের একতরফা নিষেধাজ্ঞা আরোপের কঠোর সমালোচনা করে আসছে।

এদিকে ইউরোপের ক্ষমতাধর দেশগুলো ইরান বিষয়ে ট্রাম্পের কঠোর অবস্থান থেকে নিজেদের দূরে সরিয়ে রেখেছে। তারা তেহরানের পারমাণবিক কর্মসূচি বিষয়ে করা চুক্তি বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছে। আর গত বছরই ট্রাম্প এই চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button