রাজশাহী বিভাগসারাদেশ

বড়াইগ্রামে গাছের সঙ্গে বেঁধে ভাইকে নির্যাতন,লাশ উদ্ধার

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রামে পারিবারিক কলহের জেরে গনি প্রামাণিক (৩৬) নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে ভাইদের বিরুদ্ধে। রোববার (১৬ মে) রাতে উপজেলার রয়না ভরট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, রোববার পারিবারিক কলহের জের ধরে গনিকে বাড়ির সামনের একটি গাছের সঙ্গে বেঁধে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন তার তিন ভাই রাজ্জাক, রফিক ও গোলাম। তিনি অজ্ঞান হয়ে গেলে বড়ভাই রাজ্জাক ৯৯৯ কল দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গনিকে শেকলমুক্ত করে চলে যায়। পরে সন্ধ্যায় বাড়ির পাশের খালে গণিকে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা স্বজনদের খবর দেন। পরে রাজ্জাক ও রফিক তাকে উদ্ধার করে বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত একটার দিকে গনির মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। নিহতের বড়ভাই রাজ্জাক জানান, আমার ভাই একজন মানসিক রোগী। যাকে তাকে মারধর করে। সেজন্য তাকে শেকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছিল। বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নাটোর পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button