রাজশাহী বিভাগ

ঠেঙ্গামারা গ্রামের মান্নান মন্ডল এবং জালাল মন্ডল পরিবারকে সামাজিক ও বাণিজ্যিক ভাবে বর্জন করার ঘোষণা।

স্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়া সদর উপজেলার নিশিন্দারা ইউনিয়নের ঠেঙ্গামারা গ্রামেই টিএমএসএস এর জন্ম ও সূত্রপাত। ঐ গ্রামে বিগত সপ্তাহ খানিক ধরে ভীষণ অশান্তি বিরাজ করছে বলে এলাকাবাসী দারুনভাবে সংক্ষুদ্ধ। গত ১৩/০১/২০২২ইং তারিখে রাত্রিতে গ্রামের যুব সংঘের আহবানে একটি অনুষ্ঠানে ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সহিদুল ইসলাম এর উপস্থিতিতে অত্র গ্রামের আব্দুল মান্নান মন্ডল, জালাল মন্ডলসহ সংশ্লিষ্টগণ, অসংশ্লিষ্ট বহিরাগতদেরকে গ্রামে এনে আইনশৃংখলা ভঙ্গ না করার প্রস্তাব সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়। তবুও পর দিন রোজ শুক্রবার মান্নান মন্ডল এবং জালাল মন্ডল কর্তৃক পেশাদার সন্ত্রাসীদেরকে এনে র‌্যাব, পুলিশের নির্দেশনা অমান্য করে নির্মাণ কাজ করতে গেলে গ্রামবাসীর সহিত ভাড়াটিয়া বহিরাগত সন্ত্রাসীদের সঙ্গে মারপিট এবং ধাওয়া পাল্টাধাওয়া শুরু হয়। টিএমএসএস এর স্থানীয় স্টাফ এবং গ্রামবাসীর ১০/১২ জন আহত হয় যারা গুরুতরভাবে আহত তারা শজিমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। ফলে ঠেঙ্গামারা, বাঘোপাড়া, বারবাকপুর, মহিষবাথান গ্রামের মুরুব্বীয়ান এবং ওয়ার্ড জনপ্রতিনিধি সমন্বয়ে রাত্রী প্রায় ১১.৩০ ঘটিকা পর্যন্ত আলোচনা অন্তে জাফর ভান্ডারের কর্মচারী মান্নান মন্ডল এবং আপন ভাই মরহুম কিয়াম উদ্দিনসহ অংশীদারগণকে বঞ্চনাকারী জালাল মন্ডলদের জীবন চরিত্র আলোচনান্তে সর্বসম্মতিক্রমে এই দুই পরিবারকে শান্তি প্রিয় এলাকাবাসী সকল প্রকার সম্পর্কহীন ভাবে থাকবেন মর্মে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এলাকায় যেন কোন অসংশ্লিষ্ট বহিরাগত এসে আইন শৃঙ্খলা ভঙ্গ, অশান্তির সৃষ্টি করতে না পারে সে লক্ষ্যে এলাকার সকল পাড়া থেকে উপয্্ুক্ত ব্যক্তিদের সমন্বয়ে একটি উন্নয়ন কমিটি গঠন করার দাবি প্রেক্ষিত উন্নয়ন কমিটি গঠন করা হয়। সভায় ৬ শতাধিক গ্রামবাসী আব্দুল মান্নান মন্ডল এবং জালাল মন্ডল কর্তৃক বিভিন্ন এলাকা থেকে ভাড়াটিয়া মাস্তান বাহিনী কেন শান্তি প্রিয় গ্রামে এনে হত্যাকান্ডের উদ্দেশ্যে মারামারি ও বিশৃঙ্খলা করছে, এ বিষয়ে আইন শৃঙ্খলা কর্তৃপক্ষের নিকট স্মারক লিপি দাখিল করে এলাকার শৃঙ্খলা বজায় রাখার নিমিত্তে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়। সভায় উপস্থিত বর্ষীয়ান ও সাবেক জনপ্রতিনিধিগণের মধ্যে থেকে বর্ষীয়ান নেতা ৮নং ওয়ার্ড মেম্বার মোঃ শাহজাহান আলী তালুকদার সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button