রাজশাহী বিভাগ

নাটোরের নলডাঙ্গায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু

নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের নলডাঙ্গায় সুমি আক্তার পারভীন নামের ৯ মাসের এক গভবর্তী গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার বিকাল ৪টার দিকে উপজেলার ব্রহ্মপুর সরকারপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত সুমি আক্তার পারভীন (১৮) ওই গ্রামের সাইফুল মন্ডলের ছেলে মুনির মন্ডলের স্ত্রী। স্থানীয় এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা যায়,উপজেলার ব্রহ্মপুর সরকার পাড়া গ্রামের সাইফুলের ছেলের সাথে দুই বছর আগে উপজেলার তেঘরিয়া গ্রামের শহিদুল ইসলামের মেয়ে সুমি আক্তারের বিয়ে হয়।বিয়ের পর গৃহবধু সুমি আক্তার ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়।জীবিকার তাগিদে সুমী আক্তারের স্বামী মুনির মন্ডল ঢাকায় গার্মেন্সে চাকরী করেন।গত রোববার স্বামী মনির মন্ডল একদিনের ছুটিতে বাড়িতে আসেন।পরদিন সোমবার ছুটি শেষে মনির মন্ডল ঢাকা চলে যেতে চাইলে স্ত্রী সুমি আক্তার আরো কয়েকদিন থেকে যেতে বলে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।পরে গৃহবধু সুমি আক্তার অভিমান করে শয়ন কক্ষে বাঁশের তীরের সাথে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে বলে স্বামী মনির মন্ডলের পরিবার দাবী করেছে।

ব্রহ্মপুর ইউপি সদস্য মুক্তার হোসেন নিপু বলেন,এ অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধুর হত্যা না আত্মহত্যা তা নিশ্চিত করে বলতে পারবো না।তবে এ মৃত্যু নিয়ে রহস্য আছে। নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম বলেন, ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর সমি আক্তারের মৃত্যু আত্মহত্যা কিনা এখনও সুনিশ্চতভাবে বলা যাচ্ছে না।গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করে মঙ্গলবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।ময়না তদন্তের রির্পোট আসলে বিস্তারিত বলা যাবে।তবে এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত গৃহবধূর স্বামী মনির মন্ডল ও শ^াশুড়ি মাছুরা বেগম কে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

নাটোর সদর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) মহসিন আলী বলেন,এ মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে এখনও তদন্ত চলছে।তদন্ত শেষ না হলে কিছু বলা যাবে না।তবে এ মৃত্যু রহস্যজনক বলে মনে হচ্ছে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button