খেলা

আবারও ইনজুরিতে মেসি

স্প্যানিশ ফুটবল লিগে মেসির ৪০০তম ম্যাচে জয় পেয়েছে বর্তমান লিগ চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। ক্যাম্প ন্যু’তে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ভিয়ারিয়ালকে ২-১ গোলে হারিয়েছে জয় নিশ্চিত করে কাতালান জায়ান্টরা। এই জয়ে কোচ আর্নেস্টো ভালভার্দেকে কিছুটা হলেও স্বস্তি এনে দিয়েছেন বার্সেলোনার খেলোয়াড়রা। কিন্তু আবারও ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়ে দ্বিতীয়ার্ধের আগে দলের প্রাণ ভোমরা লিওনেল মেসির মাঠত্যাগ পুরো দলকেই দুঃশ্চিন্তায় ফেলে।

ইনজুরিতে আক্রান্ত হবার পর মাঠের মধ্যেই মেসি প্রয়োজনীয় চিকিৎসা গ্রহণ করেন। ধারণা করা হচ্ছে তিনি বাম থাইয়ে আঘাত পেয়েছেন। যে কারণে বিরতির পর তার পরিবর্তে ওসমানে ডেম্বেলেকে মাঠে নামান ভালভার্দে। এটি ছিল এবারের মৌসুমে বার্সার হয়ে প্রথমবারের মত লিগে মেসির মূল একাদশে খেলা। আগস্টের শুরুতে কাফ ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়ে এতদিন তিনি বিশ্রামে ছিলেন।

ম্যাচ শেষে উদ্বীগ্ন ভালভার্দে বলেছেন, ‘মেসির যখন কিছু হয় তখন দলের সকলেই কেমন যেন থেমে যায়। শুধুমাত্র মাঠে নয়, স্ট্যান্ডেও একই পরিস্থিতি বিরাজ করে। ইনজুরির মাত্রা ততটা গুরুতর না হলেও আমরা কোনো ধরনের ঝুঁকি নিতে চাইনি।’

আগামী শনিবার লিগের পরবর্তী ম্যাচে গেতাফে সফরে যাবে কাতালান জায়ান্টরা। তার চারদিন পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ঘরের মাঠে ইন্টার মিলানকে আতিথ্য দিবে।

গত সপ্তাহে নতুন উন্নীত গ্রানাডার কাছে ২-০ গোলে পরাজিত হবার পর মঙ্গলবার মূল একাদশে ফিরেছিলেন মেসি। দলের সকলে এই দিনটির জন্য মুখিয়ে ছিল। ওই পরাজয়ে পাঁচ ম্যাচে মাত্র ৭ পয়েন্ট অর্জিত হয়েছিল বার্সার। ১৯৯৫ সালের পর এত বাজেভাবে লিগের শুরু আর হয়নি।
ক্যাম্প ন্যুতে মঙ্গলবারের ম্যাচটি ছিল খেলোয়াড়দের জন্য অনেকটাই চ্যালেঞ্জিং। বিশেষ করে ভালভার্দের জন্য লড়াইয়ে ফিরে আসাটা জরুরি ছিল। তবে সবদিক থেকেই কোচের আস্থার প্রতিদান দিয়েছে মেসি বাহিনী। ম্যাচের শুরুতেই আঁতোয়া গ্রীজম্যান ও আর্থার মেলোর গোলে বার্সার জয় নিশ্চিত হয়। মৌসুমে এটি ফ্রেঞ্চম্যান গ্রীজম্যানের তৃতীয় গোল।

এর আগে, সোমবার ফিফার বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জয় করা মেসি ৩০ মিনিটে ইনজুরিতে পড়লেও প্রথমার্ধের বাকি সময়টা মাঠেই ছিলেন। বিরতির ঠিক আগে কাজোরলার শট বার্সা গোলরক্ষক মার্ক-আন্দ্রে টার স্টেগানকে বোকা বানালে ম্যাচে ফিরে আসে ভিয়ারিয়াল। বিরতির পর মেসির স্থানে ডেম্বেলে ও ম্যাচ শেষের ১২ মিনিট আগে লুইস সুয়ারেজের স্থানে মাঠে নেমেছিলেন ১৬ বছর বয়সী আনসু ফাতি। মাঠে নেমেই দুটি সুযোগও নষ্ট করেন ফাতি।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button