খেলা

সরফরাজের বিদায়ে সতীর্থরা আনন্দে নাচছেন, পিসিবির ভুলে পাকিস্তানে হাসাহাসি!

সরফরাজ আহমেদকে টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি অধিনায়কের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। আর সেই ঘোষণার ঠিক পরের মুহূর্তেই পিসিবির একটি ভুলে পাকিস্তান ক্রিকেটে ধুন্ধুমার লেগে গেছে। অধিনায়ক হিসেবে সরফরাজকে সরানোর সিদ্ধান্ত জানানোর পরই পিসিবি একটি ভিডিও টুইট করে। আর সেই টুইট ঘিরেই যত ঝামেলা!

সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, কোনো কারণে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা ট্রেনিং সেশন চলার সময় আনন্দে নাচছেন। পরিস্থিতি এমন হয়ে উঠল যে মনে হবে, এদিকে সরফরাজকে অধিনায়ক পদ থেকে সরানো হল আর ওদিকে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা আনন্দে নেচে উঠলেন! পুরো ব্যাপারটা হয়ে উঠল দৃষ্টিকটূ। শেষমেশ পিসিবিকেও এমন অনিচ্ছাকৃত ভুলের জন্য ক্ষমা চাইতে হল। এদিকে পিসিবির এমন ভুল নিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেটে অনেকেই সমালোচনা শুরু করেছেন। তাঁদের প্রশ্ন, একটি পেশাদার সংস্থা কীভাবে এমন ভুল করতে পারে! অনেকে আবার হাসাহাসিও শুরু করেছেন।

গোটা বিষয়টা সবার আগে নজরে পড়ে পাকিস্তানের একজন ক্রীড়া সাংবাদিকের। ওসমান সামিউদ্দিন নামে ওই সাংবাদিক একটি ক্রিকেট বিষয়ক সংবাদ মাধ্যমকে কাজ করেন। তিনিই সবার আগে পিসিবির এমন ভুল ধরিয়ে দেন। নিজের টুইটার পেজে তিনি পিসিবির সেই ভিডিও পোস্ট করে লেখেন, ”সরফরাজ আহমেদকে অধিনায়ক পদ থেকে বরখাস্ত করার পরই পিসিবি এই ভিডিও প্রকাশ করেছে। দারুণ! ( যদিও ভিডিও’র ব্যাকগ্রাউন্ড কিন্তু এক বছর আগের)।”

সাংবাদিকের সেই টুইটে কয়েক মিনিটের মধ্যেই পিসিবির কর্মকর্তাদের নজরে পড়ে। আর তারা প্রায় সঙ্গে সঙ্গে সেই টুইট তুলে নেয়। এরপর রিটুইট করে ক্ষমাও চেয়ে নেয় পিসিবি। তারা লিখেছে, ”অনিচ্ছাকৃত ভুল। এমন পোস্টের জন্য আমরা দুঃখ প্রকাশ করছি। এই ভিডিও পোস্ট করার সময় সঠিক ছিল না। আমরা এই ভিডিও পোস্ট করেছি পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী। টি-২০ বিশ্বকাপের আর এক বছর বাকি। তারই প্রমোশনাল ক্যাম্পেইন হিসেবে এই ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছিল।”

আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button